বিএসপি নেতা খুনে ব্যবহৃত স্কোডা গাড়ি উদ্ধার

বিএসপি নেতা দীপক ভরদ্বাজের খুনে ব্যবহৃত স্কোডা গাড়িটি উদ্ধার করেছে পুলিস। হরিয়ানার ঝিন্দ থেকে গাড়িটি উদ্ধার করা হয়। পুলিসের দাবি, তিন আততায়ীকেও চিহ্নিত করা গিয়েছে। উত্তর পশ্চিম দিল্লির হরিয়ানা সীমান্তে তারা আছে বলে জানা গিয়েছে। মঙ্গলবার এই গাড়িটি করেই আততায়ীরা নিহত নেতার দক্ষিণ দিল্লির ফার্মহাউসে ঢুকে খুন করে বলে দাবি করেছে পুলিস।

Updated: Mar 27, 2013, 07:21 PM IST

বিএসপি নেতা দীপক ভরদ্বাজের খুনে ব্যবহৃত স্কোডা গাড়িটি উদ্ধার করেছে পুলিস। হরিয়ানার ঝিন্দ থেকে গাড়িটি উদ্ধার করা হয়। পুলিসের দাবি, তিন আততায়ীকেও চিহ্নিত করা গিয়েছে। উত্তর পশ্চিম দিল্লির হরিয়ানা সীমান্তে তারা আছে বলে জানা গিয়েছে। মঙ্গলবার এই গাড়িটি করেই আততায়ীরা নিহত নেতার দক্ষিণ দিল্লির ফার্মহাউসে ঢুকে খুন করে বলে দাবি করেছে পুলিস।
স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের একাধিক শাখা এলাকার বিভিন্ন অঞ্চলে তাঁদের খুঁজতে চিরুনি তল্লাসি চালাচ্ছে। দিল্লি পুলিসের সঙ্গে সহযোগিতা করতে তদন্তে নেমেছে হরিয়ানা পুলিসও।
প্রতিপক্ষ নির্মাণ সংস্থার সঙ্গে জমি নিয়ে বচসার জেরেই এই খুন বলে প্রাথমিক ভাবে মনে করছে পুলিস। তবে পারিবারিক বিরোধের সম্ভবনাও এই মুহূর্তে উড়িয়ে দেয়নি তারা।
দক্ষিণ দিল্লির একটি বর্ধিষ্ণু ফার্ম হাউসে আচমকা গুলি চলায় বিএসপি নেতা দীপক ভরদ্বাজ সহ দু`জনের মৃত্যু হয়। ৬২ বছরের নির্মাণ ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত এই নেতা ২০০৯-এর লোকসভা নির্বাচনে ৬০০ কোটি টাকার সম্পত্তি দেখিয়ে সব থেকে ধনী প্রার্থীদের শীর্ষে ছিলেন।
পুলিস জানিয়েছে মঙ্গলবার সকালে বসন্ত বিহারের কাছে তাঁর ফার্ম হাউসে কালো রঙের স্কোডা গাড়িতে দুই অজ্ঞাত পরিচয় দুষ্কৃতী এসে হামলা চালায়। দীপক ভরদ্বাজ সহ আরও দুই ব্যক্তির সঙ্গে বচসার পর আচমকা গুলি চালিয়ে পালিয়ে যায়। গুলিবিদ্ধ ভরদ্বাজ ও তাঁর এক সঙ্গীকে আর্মি রিসার্চ অ্যান্ড রেফেরাল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানেই প্রাণ হারান তাঁরা।