দিল্লিতে রাজনৈতিক স্থবিরতায় হঠাৎ নয়া মোড়, রাজধানীর লেফট্যান্ট জেনারেলের সঙ্গে দেখা করে সরকার গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে ১০ দিন সময় চাইলেন কেজরিওয়াল

দিল্লির রাজনৈতিক বাতাবরণ অন্যদিকে মোড় নিল। কাল পর্যন্ত চলা রাজনৈতিক স্থবিরতা কাটার কিছুটা আভাস পাওয়া গেল। সরকার গঠনের জন্য কোনও রকম সিদ্ধান্তে আসার আগে দিল্লির লেফট্যানেন্ট জেনারেল নজিব জঙ্গের কাছে ১০ দিনের সময় চেয়ে নিলেন আম আদমি পার্টির সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়াল। আজ সকালেই দিল্লির লেফট্যান্ট জেনারেলের সঙ্গে দেখা করেন তিনি। এর পরেই আপ-এর পক্ষ থেকে এক সাংবাদিক সম্মেলনে দলের সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন তিনি।

Updated: Dec 14, 2013, 11:11 AM IST

দিল্লির রাজনৈতিক বাতাবরণ অন্যদিকে মোড় নিল। কাল পর্যন্ত চলা রাজনৈতিক স্থবিরতা কাটার কিছুটা আভাস পাওয়া গেল। সরকার গঠনের জন্য কোনও রকম সিদ্ধান্তে আসার আগে দিল্লির লেফট্যানেন্ট জেনারেল নজিব জঙ্গের কাছে ১০ দিনের সময় চেয়ে নিলেন আম আদমি পার্টির সুপ্রিমো অরবিন্দ কেজরিওয়াল। আজ সকালেই দিল্লির লেফট্যান্ট জেনারেলের সঙ্গে দেখা করেন তিনি। এর পরেই আপ-এর পক্ষ থেকে এক সাংবাদিক সম্মেলনে দলের সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করেন তিনি।

এর আগে সরকার তৈরি করতে কংগ্রেসের নিঃশর্ত সমর্থনের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছিল আম আদমি পার্টি। এই অবস্থায় দিল্লিতে রাষ্ট্রপতি শাসন ছাড়া অন্য কোনও পথ খুঁজে পাচ্ছিলেন না রাজনীতিবিদরা।

গতকাল আম আদমি পার্টিকে বাইরে থেকে নিঃশর্ত সমর্থনের কথা জানিয়ে দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নরকে চিঠি দেয় কংগ্রেস। তার আগে আম আদমি পার্টির তরফে জানানো হয়, বিধায়ক কেনাবেচা করে প্রয়োজনীয় সংখ্যা জোগাড়ের চেষ্টা তারা করবে না। আজ লেফটেন্যান্ট গভর্নরের সঙ্গে দেখা করে সরকার গড়া নিয়ে দলের চূড়ান্ত অবস্থান জানাবেন অরবিন্দ কেজরিওয়ালরা। দিল্লিতে সরকার গড়া নিয়ে জটিলতার মধ্যেই হঠাতই নাটকীয় মোড়। শুক্রবার রাতে কংগ্রেসের তরফে জানানো হয়, দিল্লিতে আম আদমি পার্টি সরকার গড়লে তাকে বাইরে থেকে নিঃশর্ত সমর্থন করবে কংগ্রেস। দিল্লি কংগ্রেসের দায়িত্বে থাকা শাকিল আহমেদ বলেন, কেজরিওয়ালের দলকে নিঃশর্ত সমর্থনের কথা জানিয়ে দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর নাজিব জঙ্গকে চিঠি দিয়েছেন তাঁরা। কংগ্রেসের এই সিদ্ধান্তকে কৌশলগত চাল হিসাবেই দেখছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

শুক্রবার সকালে আম আদমি পার্টির নেতা কুমার বিশ্বাস বলেন, তাঁদের কাছে সব বিকল্পই খোলা রয়েছে। কুমার বিশ্বাসের এই বক্তব্যের পরেই দিল্লিতে আম আদমি পার্টি সরকার গড়বে কিনা তা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়। এর পরেই বৈঠকে বসেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল সহ দলের শীর্ষ নেতারা। বৈঠকের পর ম্যাজিক ফিগার না থাকায় বিরোধী আসনেই তাঁরা বসবেন বলে জানিয়ে দেন দলের নেতা যোগেন্দ্র যাদব। দ্বিতীয় বৃহত্তম দল হিসেবে বিজেপির পর আম আদমি পার্টিকে সরকার গড়ার জন্য আলোচনায় ডেকেছেন দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নর। শনিবার নাজিব জঙ্গের সঙ্গে তাঁরা এবিষয়েই কথা বলবেন বলে জানিয়েছেন যোগেন্দ্র যাদব। সরকার গড়তে বিধায়ক কেনাবেচায় আম আদমি পার্টি যাবে না বলেও জানান তিনি।

কংগ্রেসের নিঃশর্ত সমর্থনের পরেই দিল্লিতে আম আদমি পার্টির সরকার গড়া নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে। শনিবার লেফটেন্যান্ট গভর্নরের সঙ্গে আলোচনার পর সরকার গড়া নিয়ে কী সিদ্ধান্ত নেন কেজরিওয়ালরা এখন সেদিকেই তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল।