স্থিতিশীল কিন্তু আশঙ্কামুক্ত নন দিল্লির ধর্ষিতা

চার দিন কেটে গেলেও এখনও আশঙ্কামুক্ত নন দিল্লির বাসে ধর্ষিতা ২৩ বছরের তরুণী। তবে অদম্য জীবনীশক্তির জেরে দীর্ঘ লড়াইয়ের পর তাঁর অবস্থা সামান্য স্থিতিশীল বলে জানাচ্ছে সফদরজং হাসপাতালের মেডিক্যাল বোর্ড। আজ সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে চিকিৎসারত ডাক্তাররা বলেন তরুণী সজাগ এবং অপেক্ষাকৃত স্থিতিশীল। তবে আগামী বেশ কয়েকদিন তাঁকে আইসিইউ-তেই রাখা হবে। নিজে থেকে শ্বাস নিতে পারলেও এখনও তাঁকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে। তাঁর হৃদপিণ্ড, মস্তিষ্ক এবং যকৃৎ কাজ করছে। সামান্য উন্নতি ঘটেছে লিভারেও।

Updated: Dec 20, 2012, 01:06 PM IST

চার দিন কেটে গেলেও এখনও আশঙ্কামুক্ত নন দিল্লির বাসে ধর্ষিতা ২৩ বছরের তরুণী। তবে অদম্য জীবনীশক্তির জেরে দীর্ঘ লড়াইয়ের পর তাঁর অবস্থা সামান্য স্থিতিশীল বলে জানাচ্ছে সফদরজং হাসপাতালের মেডিক্যাল বোর্ড।
আজ সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে চিকিৎসারত ডাক্তাররা বলেন তরুণী সজাগ এবং অপেক্ষাকৃত স্থিতিশীল। তবে আগামী বেশ কয়েকদিন তাঁকে আইসিইউ-তেই রাখা হবে। নিজে থেকে শ্বাস নিতে পারলেও এখনও তাঁকে ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছে। তাঁর হৃদপিণ্ড, মস্তিষ্ক এবং যকৃৎ কাজ করছে। সামান্য উন্নতি ঘটেছে লিভারেও।
সংক্রমণের জন্য ক্ষুদ্রান্ত্রের একাংশ গতকালই বাদ দেওয়া হয়েছে। এর পর আবার সংক্রমণ ছড়ালে বিপদ বাড়বে বলে জানিয়েছেন ডাক্তারবর্গ। এখনও পর্যন্ত দুটি অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। তরুণীর অবস্থা স্থিতিশীল হলেও আশঙ্কাজনক।
তবে ২৩ বছরেরই তরুণীর অদম্য জীবনীশক্তিতে বিস্মিত সফদরজং হাসপাতালের ডাক্তাররা। বরিষ্ঠ ডাক্তারদের একাংশও জানিয়েছেন চিকিৎসক জীবনে ধর্ষণের ফলে পেটে এমন ক্ষত দেখেননি তাঁরা। এই গভীর ক্ষত নিয়েও ক্রমাগত লড়ে যাওয়ার মানসিকতাকে কার্যত কুর্নিশ জানিয়েছেন তাঁরা।