ফেসবুকে ফিরছেন ঠাকরে কাণ্ডের শাহিন

ফেসবুকে নিতান্তই ব্যক্তিগত মতামত লিখে গ্রেফতার হতে হয়েছিল তাঁদের। বাল ঠাকরের মৃত্যু আর ফেসবুক কাণ্ডের সেই বহু আলোচিত চরিত্র শাহিন ধাদা কিন্তু নিজের অবস্থানে অনড়। শিবসেনা যখন শাহিনের কাছে ভুল হয়েছে শুনতে মরিয়া, তখন চাপের কাছে নতি স্বীকার না করে ২১ বছরের এই তরুণী জানিয়ে দিলেন, ফেসবুকে ঠাকরের মৃত্যুকে নিয়ে করা মন্তব্য নিয়ে তাঁর মোটেই কোনও দু:খ বা আফশোস নেই।

Updated: Nov 24, 2012, 09:24 PM IST

ফেসবুকে নিতান্তই ব্যক্তিগত মতামত লিখে গ্রেফতার হতে হয়েছিল তাঁদের। বাল
ঠাকরের মৃত্যু আর ফেসবুক কাণ্ডের সেই বহু আলোচিত চরিত্র শাহিন ধাদা কিন্তু মনে করছেন তিনি কোনও অপরাধ করেননি। শিবসেনা যখন শাহিনের কাছে ভুল হয়েছে শুনতে মরিয়া, তখন
চাপের কাছে নতি স্বীকার না করে ২১ বছরের এই তরুণী জানিয়ে দিলেন, ফেসবুকে
ঠাকরের মৃত্যুকে নিয়ে করা মন্তব্য নিয়ে তাঁর মোটেই কোনও দু:খ বা আফশোস নেই।
অথচ চাপের মুখে পড়ে ফেসবুকে নিজের অ্যাকাউন্ট ডিলিট করে দিয়েছিলেন শাহিন। তার `কমেন্ট` `লাইক`করে পুলিসের কোপে পড়া রেনু শ্রীনিবাসও ফেসবুক থেকে নিজেক সরিয়ে নিয়েছিলেন। কিন্তু এদিনে এক বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে এসে শাহিদ জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি আবার ফেসবুকে ফিরছেন। এবং সেখানে তাঁর নিজের পছন্দের কথা বলতে পিছপা হবেন না।
প্রসঙ্গত, শাহিন ফেসবুকে লিখেছিলেন,“বাল ঠাকরের মতো লোকেরা রোজই মারা যাচ্ছেন। তাতে বন্ধ করার কী প্রয়োজন? বরং ভগৎ সিংহ, সুখদেবের মতো মানুষকে স্মরণ করা উচিত।”রেনু এই মন্তব্য `লাইক` করেছিলেন। এরপরই দুজনকে গ্রেফতার করা হয়। পরে অবশ্য রেনু বলেছিল, "আজ রেনু বলেছে, আমি যা করেছি তার জন্য আমি দুঃখিত। এমনটা হওয়া উচিত ছিল না। কোনওদিন স্বপ্নেও ভাবিনি কোর্টে দাঁড়াতে হবে। কিন্তু আমরা কোনও অপরাধ করিনি। তবে এখন ফেসবুকে কোনও পোস্ট করার আগে দুবার ভাবব।"শাহিনও বলেছিলেন, সে আর কোনও দিন ফেসবুক খুলবে না।