ফের অশান্ত অসম

অশান্তির আগুনে এখনও জ্বলছে অসম। গতকাল রাতে কোকরাঝাড় জেলায় নতুন করে হিংসার ঘটনায় আরও একজনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। আহত কমপক্ষে পাঁচ। রাজ্য পুলিসের আইজি আইন শৃঙ্খলা এল আর বিষ্ণই জানিয়েছে, ফকিরাগ্রাম থানার অন্তর্গত পাক্রিতলা গ্রামে দুষ্কৃতীদের গুলিতে প্রাণ হারাণ একজন। আহতের সংখ্যা চার। এছাড়া গোসাইগাওঁয়ের টুপিমারিতেও একাধিক বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয় দুষ্কৃতীরা।

Updated: Aug 28, 2012, 11:31 AM IST

অশান্তির আগুনে এখনও জ্বলছে অসম। গতকাল রাতে কোকরাঝাড় জেলায় নতুন করে হিংসার ঘটনায় আরও একজনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। আহত কমপক্ষে পাঁচ। রাজ্য পুলিসের আইজি আইন শৃঙ্খলা এল আর বিষ্ণই জানিয়েছে, ফকিরাগ্রাম থানার অন্তর্গত পাক্রিতলা গ্রামে দুষ্কৃতীদের গুলিতে প্রাণ হারাণ একজন। আহতের সংখ্যা চার। এছাড়া গোসাইগাওঁয়ের টুপিমারিতেও একাধিক বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয় দুষ্কৃতীরা।
খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পুলিস। হামলাকারীদের ধরতে না পারলেও, অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় একজনকে উদ্ধার করে তারা। একই ধরনের ঘটনা ঘটা সালকাঠির ফুমটি গ্রামে। সেখানেও বেশকিছু বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয় একদল দুষ্কৃতী। আতঙ্কে স্থানীয় মানুষজন রাস্তায় নামেন।
রাজ্যজুড়ে হিংসা নিয়ন্ত্রণে রাজ্যসরকারের ব্যর্থতার প্রতিবাদে আজ অসমের সংখ্যালঘু ছাত্র সংসদের ডাকে ১২ ঘণ্টার বনধ পালিত হচ্ছে। গতকালও অসমে ১২ ঘণ্টার বনধ ডেকেছিল বজরং দল। অসমে নতুন করে সংঘর্ষ ছড়ানোয় উদ্বিগ্ন কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার। 
জুলাই মাসের ১৮ তারিখ থেকে শুরু হওয়া গোষ্ঠী সংঘর্ষের ঘটনায় অসমে মৃতের সংখ্যা ৯০ ছাড়িয়েছে। ঘরছাড়া দুই লক্ষাধিক মানুষ। যার মধ্যে চিরাং জেলাতেই ২২টি শরনার্থী শিবিরে আশ্রয় নিয়েছেন ৪০ হাজার মানুষ।