রাজনীতি নয় স্বাস্থ্যের কারণেই তরুণীকে বিদেশে পাঠানো হয়েছে, মন্তব্য খুরশিদের

দিল্লি ধর্ষণকাণ্ডে আক্রান্ত তরুণীকে বিদেশে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার পেছনে কোনও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য থাকার কথা উড়িয়ে দিলেন বিদেশমন্ত্রী সলমন খুরশিদ। বিদেশমন্ত্রী শুক্রবার জানিয়েছেন, তরুণীকে চিকিৎসকদের সিদ্ধান্তেই স্থানান্তরিত করা হয়েছে। এই ঘটনায় কোনও রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ হয়নি বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। শুধুমাত্র চিকিৎসাধীন তরুণীর পাসপোর্ট পেতে সহায়তা করেছে সরকার।

Updated: Dec 28, 2012, 07:59 PM IST

দিল্লি ধর্ষণকাণ্ডে আক্রান্ত তরুণীকে বিদেশে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার পেছনে কোনও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য থাকার কথা উড়িয়ে দিলেন বিদেশমন্ত্রী সলমন খুরশিদ। বিদেশমন্ত্রী শুক্রবার জানিয়েছেন, তরুণীকে চিকিৎসকদের সিদ্ধান্তেই স্থানান্তরিত করা হয়েছে। এই ঘটনায় কোনও রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ হয়নি বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। শুধুমাত্র চিকিৎসাধীন তরুণীর পাসপোর্ট পেতে সহায়তা করেছে সরকার।
খুরশিদ বলেন, "এই স্থানান্তর রাজনৈতিক কারণে নয়। চিকিৎসার করণেই তাঁকে স্থানান্তর করা হয়েছে।" তিনি আরও বলেন, "আমি নিশ্চিত সিঙ্গাপুরে নিয়ে যাওয়ার আগে চিকিৎসকরা ইউএস, ইউকে কিংবা জার্মানির কথা ভেবেছিলেন।" কিন্তু পরবর্তী চিকিৎসা স্থান নির্ণয়ের আগে রোগীনির স্বাস্থ্যর নিরিখে দূরত্ব ও সময়কে বিবেচনা করা হয়েছে বলে জানিয়েছে খুরশিদ।