'বাবার' যৌন থাবা রুখতে ছদ্ম পিরিয়ডই ঢাল সেবিকাদের

Updated: Sep 14, 2017, 04:09 PM IST
'বাবার' যৌন থাবা রুখতে ছদ্ম পিরিয়ডই ঢাল সেবিকাদের

নিজস্ব প্রতিবেদন: এখন এমন প্রতিপন্ন হচ্ছে, 'রকস্টার বাবা'র কীর্তি বর্ণনা করতে গেলে হয়ত একটা গ্রন্থতেও শেষ হবে না! লিখতে হবে লাখো লাখো শব্দ। কালি তৈরির একটা গোটা ফ্যাক্টরি আর হাজার হাজার রিমের সাদা পাতাতেও শেষ করা যাবে না স্বঘোষিত ধর্মগুরু গুরমিত রাম রহিমের কীর্তি। ২০ বছর কারাদণ্ডের মাত্র ২ সপ্তাহই কেটেছে, সামনে আসছে জেল নিবাসী ধর্ষক বাবার একের পর এক এক বিস্ফোরক তথ্য। রাম রহিম নিয়ে এবার মুখ খুললেন ডেরারই এক নিপীড়িত সেবিকা। "ধর্ষণ থেকে বাঁচতে পিরিয়ড হওয়ার অভিনয় করতাম", জি নিউজকে জানাল ডেরার এক অল্পবয়সী সেবিকা। 

নিজের অভিজ্ঞতা বলতে গিয়ে ওই সেবিকা জানান, বাবার 'গুফা'য় (শোয়ার ঘর) প্রথম যেদিন ঢুকি, সেদিনই বুঝতে পারি গুরমিত রাম রহিমের আসল মতলব কী! প্রতি রাতেই একজন করে সেবিকাকে পাঠানো হত বাবার গুফায়। ভন্ড বাবার হাত থেকে রক্ষা পেতে আমার মত অনেকেই পিরিয়ড হওয়ার অভিনয় করত, তবে সবাই যে 'বেঁচে' আসতে পেরেছে তা নয়, জানিয়েছে নির্যাতিনের শিকার হওয়া ওই সেবিকা। সে আরও জানায়, বাবা নিজের বিছানায় শুয়ে শুয়ে ব্লু ফিল্ম দেখতেন আর সেবিকাদের বলতেন নিজের কাছে এসে বসতে, তারপর... 

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close