বিয়ের আসরেই খুন হলেন পাত্র

বিয়ের আসরেই খুন হলেন পাত্র

বিয়ের আসরেই খুন হলেন পাত্র উত্তর চব্বিশ পরগনার হালিশহরে বিয়ের আসরেই খুন হলেন পাত্র। বিয়ের অনুষ্ঠান চলাকালীন হঠাতই ঢুকে পড়ে চার-পাঁচ জন যুবক। পাত্র শৌভিক দের কপালে বন্দুক ঠেকিয়ে গুলি করে তারা। হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর। পাত্রীর পরিবারের অভিযোগ, তাকে উত্যক্ত করত এক যুবক। বেশ কয়েকবার হুমকিও দেয় সে। এই ঘটনার সঙ্গে ওই যুবক জড়িত বলে সন্দেহ পাত্রীর পরিবারের।

হালিশহরের নবনগরের মর্ডান হাউসে তখন বিয়েবাড়ির মেজাজ । চলছে সিঁদুরদান। হঠাতই ছন্দপতন। ভেতরে ঢুকে পড়ে চার-পাঁচজন যুবক। পাত্র শৌভিক দে কে খুব কাছ থেকে গুলি করে তারা। লুটিয়ে পড়েন হালিশহর মালঞ্চ এলাকার বাসিন্দা তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থার কর্মী শৌভিক।

গুলিবিদ্ধ শৌভিককে নিয়ে যাওয়া  হয় হাসপাতালে। সেখানেই মৃত্যু হয় তাঁর। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন তৃণমূল সাংসদ মুকুল রায়।

পাত্রীর পরিবারের অভিযোগ, বেশ কিছুদিন ধরেই রাজীব নামে এক যুবক তাকে উত্যক্ত করত । একাধিকবার তাঁকে হুমকিও দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ।

সমস্ত বিষয় খতিয়ে দেখছে পুলিস। ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে তদন্ত।

এদিকে ঘটনার পরেই গুলি চালনায় অভিযুক্ত এক যুবককে ধরে ফেলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। ব্যাপক মারধর করা হয় তাকে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ওই যুবককে। 

 

First Published: Sunday, January 20, 2013, 10:23


comments powered by Disqus