নির্বাচনীবিধি ভঙ্গের অভিযোগে কমিশনের নোটিস কেশুভাইকে

নির্বাচনীবিধি ভঙ্গের অভিযোগে গুজরাতের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা গুজরাত পরিবর্তন পার্টির (জিপিপি) প্রধান কেশুভাই প্যাটেলকে নোটিস পাঠাল নির্বাচন কমিশন। পাইলট কার নিয়ে ভোট দিতে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে জিপিপি প্রধানের বিরুদ্ধে। এদিন সকালে হেলিকপ্টারে রোহটাক পৌঁছন কেশুভাই। সেখান থেকে সরাসরি সরস্বতী শিশু মন্দিরে ভোট দিতে যান তিনি। সেইসময়ই পাইলট কার ব্যবহার করায় কেশুভাইকে নোটিস পাঠানো হয়েছে।

Updated: Dec 13, 2012, 06:39 PM IST

নির্বাচনীবিধি ভঙ্গের অভিযোগে গুজরাতের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা গুজরাত পরিবর্তন পার্টির (জিপিপি) প্রধান কেশুভাই প্যাটেলকে নোটিস পাঠাল নির্বাচন কমিশন। পাইলট কার নিয়ে ভোট দিতে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে জিপিপি প্রধানের বিরুদ্ধে। এদিন সকালে হেলিকপ্টারে রোহটাক পৌঁছন কেশুভাই। সেখান থেকে সরাসরি সরস্বতী শিশু মন্দিরে ভোট দিতে যান তিনি। সেইসময়ই পাইলট কার ব্যবহার করায় কেশুভাইকে নোটিস পাঠানো হয়েছে।
এক নির্বাচনী অধিকারিক জানান,"পাইলট কারে ভোটদান কেন্দ্রে যাওয়া, নির্বাচনীবিধি ভঙ্গের আওতায় পরে।" সেই কারণেই কেশুভাইকে নোটিস পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওই আধিকারিক। এদিন ভোট দিয়ে বেরিয়ে কেশুভাইয়ের গলাতে ছিল আত্মবিশ্বাসী সুর, "গোটা রাজ্যে পরিবর্তনের হাওয়া বইছে।" সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণে আত্মবিশ্বাসী কেশুভাই। নাম না করে মোদীর বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে কেশুভাই বলেন, "বেশকিছু নেতা ভুল তথ্য পেশ করে মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছেন। কিন্তু রাজ্য পরিবর্তন চাইছে, জিপিপি সেই পরিবর্তনের নেতৃত্ব দেবে।"
বৃহস্পতিবার বিধানসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোটগ্রহণে ভালই সারা পরেছে সৌরাষ্ট্রে। নির্বাচন কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে বিকেল তিনটে পর্যন্ত মোট ভোট পড়েছে ৫৩ শতাংশ। প্রায় আধা গুজরাত, সংখ্যার হিসাবে ১ কোটি ৮০ লক্ষ মানুষ আজ তাঁদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। গুজরাত বিধানসভায় মোট আসন ১৮২। তার মধ্যে আজ ২৭টি আসনে ভোটগ্রহণ চলছে এদিন। সৌরাষ্ট্রের ৭টি জেলার ৪৮টি আসনে, দক্ষিণ গুজরাটের ৫টি জেলার ৩৫টি আসনে এবং আমেদাবাদের ৪টি আসনে ভোট নেওয়া হচ্ছে।