কংগ্রেস জিতলে গুজরাটে মুখ্যমন্ত্রী আহমেদ পটেল, পোস্টার ঘিরে বিতর্ক

আহমেদ পটলের মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করে সুরাটের সংখ্যালঘু এলাকায় পোস্টার পড়ল কংগ্রেসের।  

Updated: Dec 7, 2017, 05:01 PM IST
কংগ্রেস জিতলে গুজরাটে মুখ্যমন্ত্রী আহমেদ পটেল, পোস্টার ঘিরে বিতর্ক

নিজস্ব প্রতিবেদন: 'আহমেদ পটেলকে গুজরাটের বজির-এ-আলম হিসেবে দেখতে চাইলে একজোট হয়ে ভোট দিন', ভোটমুখী গুজরাটে সুরাটের সংখ্যালঘু এলাকায় এবার কংগ্রেসের এমন পোস্টারই দেখা গেল। বিজেপির অভিযোগ, জাতপাতের রাজনীতির সঙ্গে এবার ভোটের আগে ধর্মীয় মেরুকরণের রাজনীতিও শুরু করে দিল কংগ্রেস। তবে, পোস্টারটি তাদের নয় বলে দাবি করেছে রাহুল গান্ধীর দল। 

গুজরাটের ভোটপ্রচারে নিজেকে শিবভক্ত হিসেবে দাবি করেছেন রাহুল গান্ধী। এমনকি কংগ্রেসের দাবি, রাহুল পৈতেধারী হিন্দু। অনেকেই বলছেন, 'নরম হিন্দুত্ব'ই রাহুলের কৌশল। অনেকেই বলছেন, কংগ্রেসের এবারের প্রচারে সেভাবে গোধরা কাণ্ডের কথা শোনাই যাচ্ছে না। আর এর ফলে, সংখ্যালঘুদের উপরে বিরূপ প্রভাব পড়েছে বলে মত কংগ্রেসের একাংশের। সেই প্রেক্ষাপটে এবার সংখ্যালঘু এলাকায় সোনিয়া গান্ধীর রাজনৈতিক সচিব তথা রাজ্যসভার সাংসদ আহমেদ পটেলকে অলিখিতভাবে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসাবে তুলে ধরে প্রচারে নামল কংগ্রেস। অন্তত পোস্টার সে কথাই বলছে। অথচ সরকারিভাবে এখনও পর্যন্ত সেরকম কোনও ঘোষণাই হয়নি কংগ্রেসের তরফে। বিজেপির দাবি, আহমেদ পটেলকে ব্যবহার করে আসলে ধর্মীয় মেরুকরণের তাস খেলছে কংগ্রেস। 

আরও পড়ুন- গুজরাটে ভোটপ্রচারে এবার মোদীর মুখে 'রাম মন্দির'

প্রত্যাশিতভাবেই বিষয়টি হাতিয়ার করে ময়দানে নেমে পড়েছে বিজেপি। 'শিবভক্ত' রাহুলকে খোঁচা দেওয়ার সুযোগ এসে গিয়েছে। কংগ্রেসের দাবি, এটা বিজেপির লোকেদেরই কাজ। তারাই এই পোস্টার দিয়ে মেরুকরণ করার চেষ্টা করছে। আহমেদ পটেল বলেন, ''আমি কোনওকালেই মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী ছিলাম না। হারার ভয়েই বিভ্রান্তিমূলক প্রচার করছে বিজেপি।'' 

আরও পড়ুন- গুজরাটে ক্ষমতা ধরে রাখছে বিজেপি, ইঙ্গিত সমীক্ষার