ধর্মঘটী পাইলটদের নোটিশ দিল্লি হাইকোর্টের

Last Updated: Wednesday, May 23, 2012 - 15:59

ষোল দিন টানা ধর্মঘটের পর অবশেষে কিছুটা সুর নরম করল পাইলটস গিল্ড। বরখাস্ত হওয়া সব কর্মীকে কাজে ফিরিয়ে নিলে তারা আলোচনায় বসতে রাজি বলে জানাল আইপিজি। তবে ধর্মঘট কবে মিটবে তার কোনও ইঙ্গিত বুধবারও মেলেনি। ধর্মঘটী পাইলটদের বিরুদ্ধে ফের আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে কর্তৃপক্ষ। দিল্লি হাইকোর্টে আদালত অবমাননার মামলা দায়ের করা হয়েছে। দিল্লি হাইকোর্ট আদালত অবমাননার নোটিস পাঠিয়েছে ধর্মঘটী পাইলটদের।
এয়ারইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষ একের পর এক পাইলটকে বরখাস্ত করলেও নিজেদের অবস্থানেই অনড় রয়েছেন এয়ারইন্ডিয়ার ধর্মঘটী বিমানচালকরা। দু সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও
কাজে যোগ দেননি তারা। তবে বুধবার ধর্মঘটী পাইলটরা জানিয়েছেন, আলোচনায় বসতে তারা রাজি। পরিবর্তে বরখাস্ত হওয়া কর্মীদের ফের কাজে বহাল করার
শর্ত দিয়েছেন তারা।

এয়ার ইন্ডিয়ার ধর্মঘটী পাইলটদের বিরুদ্ধে এবার আদালত অবমানার অভিযোগে নোটিশ ইস্যু করল দিল্লি হাইকোর্ট। এয়ার ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষের তরফে দিল্লি হাইকোর্টে দায়ের করা আদালত অবমাননার মামলার প্রাথমিক শুনানির পর এই নোটিশ ইস্যু করে দিল্লি হাইকোর্ট।
বুধবার১৬ দিনে পড়েছে এয়ার ইন্ডিয়ার পাইলটদের এই ধর্মঘট। এই ধর্মঘটকে আগেই বেআইনী ঘোষণা করে আদালত। এয়ার ইন্ডিয়া কর্তৃপক্ষের তরফে বরখাস্ত করা হয়েছে ১০১ জন ধর্মঘটি পাইলটকে। এরপরও ধর্মঘট তোলেননি পাইলটরা। ফলে আদলতের অবমাননা হয়েছে, এই অভিযোগ তুলে দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছে কর্তৃপক্ষ। কর্তৃপক্ষের দাবি, ইতিমধ্যেই এই ধর্মঘটের জেরে ক্ষতির পরিমাণ ২৫০ কোটি টাকা পেরিয়েছে। এই ধর্মঘটকে ফের বেআইনি আখ্যা দিয়ে অসামরিক প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণের কথা সরকারের তরফে ভাবা হচ্ছে। তবে এদিন দিল্লি হাইকোর্টের তরফে ধর্মঘটী পাইলটদের উদ্দেশ্যে জবাবদিহির নোটিশ জারি করার ফলে তাঁরা যথেষ্ট বিপাকে পড়লেন বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।



First Published: Wednesday, May 23, 2012 - 21:30


comments powered by Disqus