অসমে নৌকাডুবি, ১৫০ জনের প্রাণহানির আশঙ্কা

অসমে পশ্চিম ধুবড়ির কাছে ফকিরগ্রামে ব্রহ্মপুত্র নদে একটি যাত্রীবাহী ফেরি ডুবে যায়। ফেরিটিতে ৩০০ জন যাত্রী ছিল। প্রায় ১০০ জন সাঁতরে প্রাণ বাঁচানোর চেষ্টা চালালেও, এই ঘটনায় কমপক্ষে ১৫০ জন যাত্রীর মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে।

Updated: Apr 30, 2012, 10:23 PM IST

অসমে এক ভয়াবহ নৌকাডুবির ঘটনায় তলিয়ে গেলেন প্রায় ১৫০ জন যাত্রী। সোমবার ধুবড়ির কাছে ব্রহ্মপুত্র নদে ওই নৌকাডুবির ঘটনা ঘটে। দোতলা নৌকাটিতে ৩০০জনেরও বেশি যাত্রী ছিলেন। নৌকাডুবির পর প্রায় ১০০ জন সাঁতরে পাড়ে ওঠেন। এখনও অনেকের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না।
উদ্ধারের কাজে সেনাবাহিনী, বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের কর্মীদের পাশাপাশি নেমেছে পুলিসও। জানা গিয়েছে, বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ হঠাতই ঝড়ের কবলে পড়ে নৌকাটি। অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে ব্রহ্মপুত্রের জলে আর টাল সামলাতে পারেনি সেটি। দুর্ঘটনায় গভীর শোকজ্ঞাপন করেছেন রাষ্ট্রপতি প্রতিভা পাটিল। দুর্ঘটনার খবর পাওয়ার পরই অসমের মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈয়ের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। উদ্ধারের কাজে রাজ্য সরকার সবরকমের উদ্যোগ নেবে বলে প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়েছেন অসমের মুখ্যমন্ত্রী। একই সঙ্গে দুর্ঘটনায় যাদের মৃত্যু হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ তহবিল থেকে তাদের পরিবারকে আর্থিক সাহায্যেরও আশ্বাস দিয়েছেন মনমোহন সিং।