বিক্ষোভের মাঝেই দিল্লির মন জিততে উন্নয়নেই জোর মোদীর

ভোট ব্যাঙ্কের রাজনীতিতে ক্ষতি হয়েছে দেশের। দিল্লির শ্রীরাম কলেজ অফ কমার্সে বক্তব্য রাখতে ফিয়ে গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রীর গলায় উন্নয়নের সুরই ভেসে এল। নতুন প্রজন্মের কাছে তাঁর আর্জি, ভারতকে বিশ্বের দরবারে `ব্র্যান্ড` হিসেবে তুলে ধরতে অগ্রনী ভূমিকা নিন তাঁরা। তিনি বলেন, "সব সমস্যার সমাধান উন্নয়ন। ভোট ব্যাঙ্কের কেন্দ্রিক রাজনীতি করতে গিয়ে দেশ ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। আমাদের প্রয়োজন উন্নয়নের। উন্নয়নের মাধ্যমেই দেশের অগ্রোন্নয়ন সম্ভব।"

Updated: Feb 6, 2013, 07:31 PM IST

ভোট ব্যাঙ্কের রাজনীতিতে ক্ষতি হয়েছে দেশের। দিল্লির শ্রীরাম কলেজ অফ কমার্সে বক্তব্য রাখতে ফিয়ে গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রীর গলায় উন্নয়নের সুরই ভেসে এল। নতুন প্রজন্মের কাছে তাঁর আর্জি, ভারতকে বিশ্বের দরবারে `ব্র্যান্ড` হিসেবে তুলে ধরতে অগ্রনী ভূমিকা নিন তাঁরা। তিনি বলেন, "সব সমস্যার সমাধান উন্নয়ন। ভোট ব্যাঙ্কের কেন্দ্রিক রাজনীতি করতে গিয়ে দেশ ধ্বংস হয়ে গিয়েছে। আমাদের প্রয়োজন উন্নয়নের। উন্নয়নের মাধ্যমেই দেশের অগ্রোন্নয়ন সম্ভব।"
নিজের রাজ্যে প্রশাসনের ভূয়সী প্রশংসা করে মোদীর দাবি গুজরাটের মডেলে চললে ভারতের অর্থনৈতিক উন্নতি সম্ভব।
তবে মোদী বিরোধী বিক্ষোভে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল দিল্লি শ্রীরাম কলেজ অফ কমার্স চত্ত্বর। কলেজের অনুষ্ঠানে গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানানোর প্রতিবাদে কলেজের বাইরে বিক্ষোভ দেখায় বামপন্থী ছাত্র সংগঠনের সদস্যরা। মোদীর বিরুদ্ধে আগেই ছাত্র সংগঠন এআইএসএফ বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করায় সকাল থেকে কড়া নিরাপত্তা ছিল শ্রীরাম কলেজ চত্ত্বরে। কিন্তু নজরদারি সত্ত্বেও ক্রমশ উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি। পুলিসের ব্যারিকেড ভেঙে ভিতরে ঢোকার চেষ্টা করেন বিক্ষোভকারীরা। গো-ব্যাক মোদী স্লোগানের মাঝেই কলেজে পৌঁছন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী। শ্রীরাম কলেজের আলোচনা চক্রে প্রধান বক্তা নরেন্দ্র মোদী। অনুষ্ঠানে থাকছেন কলেজের ছাত্র এবং অধ্যাপকরা।