শরিফ বললেন, ফের ভারত-পাক যুদ্ধ বাধতে পারে, মনমোহনের জবাব আমার জীবদ্দশায় ওরা কোনওদিন যুদ্ধে জিতবে না

আবার ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ বাধবে। এমনই বিস্ফোরক কথাই বললেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। পাকিস্তানের বিখ্যাত সংবাদপত্র `ডন` পাক প্রধানমন্ত্রী শরিফকে উদ্ধৃত করে এমন খবর প্রকাশ করেছে। শরিফ আজাদ জম্মু অ্যান্ড কাশ্মীরের বাজেট অধিবেশনে বলেছেন, তিনি বেঁচে থাকা অবস্থায় তিনি মুক্ত কাশ্মীর দেখে যেতে চান।এটাই তাঁর স্বপ্ন। তিনি মনে করেন কাশ্মীরের সমস্যা সমাধান সেখানকার বাসিন্দা এবং রাষ্ট্রসংঘের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমেই সম্ভব।

Updated: Dec 4, 2013, 06:25 PM IST

কাশ্মীরকে ঘিরে আবার ভারত-পাকিস্তান চতুর্থ যুদ্ধ বাধবে। এমনই বিস্ফোরক কথাই বললেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী। যার জবাবে প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং বললেন, ''ভারতের সঙ্গে যুদ্ধে কোনও দিন জিতবে না পাকিস্তান।'' সেইসঙ্গে মনমোহন সিং বলেন, আমার জীবদ্দশায় ভারতের সঙ্গে কোনওদিন জিতবে না পাকিস্তান।
সব মিলিয়ে কামান-গোলাবারুদ নিয়ে যুদ্ধের আগেই বাক্‌যুদ্ধে নামল প্রতিবেশী দুই দেশ।

পাকিস্তানের বিখ্যাত সংবাদপত্র `ডন` পাক প্রধানমন্ত্রী শরিফকে উদ্ধৃত করে বলা হয় কাশ্মীর নিয়ে শুরু হতে পারে যুদ্ধ। শরিফ আজাদ জম্মু অ্যান্ড কাশ্মীরের বাজেট অধিবেশনে বলেছেন, তিনি বেঁচে থাকা অবস্থায় তিনি মুক্ত কাশ্মীর দেখে যেতে চান। এটাই তাঁর স্বপ্ন।

তিনি মনে করেন কাশ্মীরের সমস্যা সমাধান সেখানকার বাসিন্দা এবং রাষ্ট্রসংঘের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমেই সম্ভব। যদিও পাক সরকারের বিবৃতিতে এই অংশ বাদ দেওয়া হয়েছে।

ভারত-পাক সীমান্তে সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন নিয়ে গত কয়েকমাস ধরেই দুদেশের সম্পর্কে টানাপোড়েন চলছে। বিনা প্ররোচনায় পাক সেনা সীমান্তে গোলাগুলি চালানোয় তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে নয়াদিল্লি।

এ বার নয়াদিল্লির বিরুদ্ধে সরাসরি যুদ্ধের হুঁশিয়ারি দিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। কাশ্মীর নিয়ে পরমাণু শক্তিধর এই দুই দেশের মধ্যে যেকোনও সময় যুদ্ধ বাধতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী। কাশ্মীর সমস্যার জলদি সমাধান করা উচিত বলেও মনে করেন শরিফ। পাক অধিকৃত কাশ্মীরের কাউন্সিলের বাজেট অধিবেশনে এমন কথা বলেন পাক প্রধানমন্ত্রী। শরিফের এই বক্তব্যের নিন্দা করেছে বিজেপি, জেডিইউ সহ একাধিক রাজনৈতিক দল।

কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তানের দাবির গভীরতা বোঝাতে নওয়াজ শরিফ বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বৈঠকেও বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেছেন তিনি। আরও একধাপ এগিয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী শরিফ বলেছেন কাশ্মীর একদিন স্বাধীন হবেই। তাঁর জীবদ্দশায় এই স্বপ্ন সফল হবে বলেও মনে করেন তিনি।

পাক প্রধানমন্ত্রী কাশ্মীর নিয়ে এতটা সোচ্চার হলেও পাক সরকার কিন্তু সাবধানি পদক্ষেপ নিয়েছে। পাক প্রধানমন্ত্রীর দফতর এই খবর অস্বীকার করেছে। একাংশের মতে ক্ষমতায় আসার পর একগুচ্ছ প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী । কিন্তু এতদিনেও তার অধিকাংশই পূরণ করতে পারেনি সরকার। নিজের ব্যর্থতা ঢাকতে কাশ্মীর ইস্যুকে ঢাল করতে চাইছে নওয়াজ শরিফ।

কাউন্সিলে বক্তব্য রাখার সময় পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ আরও বলেন, পাকিস্তানের অধিকৃত কাশ্মীরের কাউন্সিল। তাঁর বক্তব্য, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এই সমস্যার সমাধান করা উচিত।

শরিফ অভিযোগের সুরে বলেন, ভারতই প্রথম যুদ্ধের দিকে এগিয়েছে। দুই প্রতিবেশী রাষ্ট্রের মধ্যে শুরু হয়েছে অস্ত্রের লড়াই। ভারত যদি এমনটা না করত, তাহলে হয়তো পাক প্রশাসন পাকিস্তানের সামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে এবং দারিদ্র দূরীকরণে সেই অর্থ ব্যয় করতে পারত। তাই দুই প্রতিবেশী রাষ্ট্রের মধ্যে ফের যুদ্ধ শুরুর আগেই এই সমস্যার সমাধান করা প্রয়োজন বলে তিনি মনে করেন।