কাসবের সঙ্গে ন্যায় বিচারই হয়েছে, সুপ্রিম কোর্টকে জানাল মহারাষ্ট্র সরকার

কাসবের সঙ্গে অন্যায় বিচারের অভিযোগ খারিজ করে দিল মহারাষ্ট্র সরকার। বুধবার সুপ্রিম কোর্টকে মহারাষ্ট্র সরকার জানায়, ২৬/১১ মুম্বই সন্ত্রাসে ধৃত জঙ্গি মহম্মদ আজমল আমির কাসবের সঙ্গে ন্যায় বিচার হয়েছে। এবং তার সাংবিধানিক অধিকারকেও কোনও ভাবে লঙ্ঘন করা হয়নি।

Updated: Feb 15, 2012, 05:01 PM IST

কাসবের সঙ্গে অন্যায় বিচারের অভিযোগ খারিজ করে দিল মহারাষ্ট্র সরকার। বুধবার সুপ্রিম কোর্টকে মহারাষ্ট্র সরকার জানায়, ২৬/১১ মুম্বই সন্ত্রাসে ধৃত জঙ্গি মহম্মদ আজমল আমির কাসবের সঙ্গে ন্যায় বিচার হয়েছে। এবং তার সাংবিধানিক অধিকারকেও কোনও ভাবে লঙ্ঘন করা হয়নি।
মুম্বই সন্ত্রাসে একমাত্র জীবীত জঙ্গি কাসবকে ইতিমধ্যেই মৃতদণ্ড দিয়েছে বম্বে হাইকোর্ট। উচ্চ আদালতের নির্দেশ বহাল রেখেছে সুপ্রিম কোর্ট। কিন্তু শীর্ষ আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে ২৪ বছর বয়সী কাসভ অভিযোগ জানায়, তার সঙ্গে ন্যায় বিচার হয়নি। বিচারাধীন অবস্থায় দোষ স্বীকারের জন্য একটা `রোবোট`-এর মতো তার `মগজ ধোলাই` করা হয়েছে । এত কম বয়সে সে মৃত্যুদণ্ডের যোগ্য নয় বলেও দাবি করে কাসব। এদিন মহারাষ্ট্র সরকারের আইনজীবী প্রাক্তন সলিসিটর জেনারেল গোপাল সুব্রহ্মণ্যম সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি আফতম আলম ও বিচারপতি সি কে প্রসাদের ডিভিশন বেঞ্চকে বলেন, ``কাসবকে কোনও সময়ে কোনও ভাবেই অত্যাচার করা হয়নি। তার সাংবিধানিক অধিকারও লঙ্ঘন করেনি কর্তৃপক্ষ।`` তার বিরুদ্ধে মৃত্যুদণ্ডের আদেশকে পরিবর্তন করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড করে দেওয়ার জন্য মঙ্গলবার শীর্ষ আদালতের কাছে অনুরোধ জানায় কাসব।
এদিন সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত কাসবের আইনজীবী রাজু রামচন্দ্রণ জানান, রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে যুদ্ধের ষড়যন্ত্রে ঘনিষ্ঠ ভাবে জড়িত ছিল না কাসব। কম বয়সে ভুল আদর্শ ও অন্ধ ধর্মীয় বিশ্বাসের বশবর্তী হয়েই সন্ত্রাসের পথ নিয়েছিল সে। তাই তার মৃত্যুদণ্ড ক্ষমা করা হোক।