LIVE UPDATE: দিল্লি পুলিসের বিরুদ্ধে ধর্না প্রত্যাহার অরবিন্দ কেজরিওয়ালের

Last Updated: Tuesday, January 21, 2014 - 20:12

LIVE UPDATE

৭টা ৪০: দিল্লিতে ধর্না প্রত্যাহার করলেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তিনি বলেন, "ভারতের ইতিহাসে এই প্রথম কোনও মুখ্যমন্ত্রী তাঁর মন্ত্রিসভা সঙ্গে নিয়ে ধর্নায় বসছিল। অভিযুক্ত পুলিস আধিকারিকের বিরুদ্ধে তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন দিল্লির উপরাজ্যপাল জাবীব জঙ্গ। তাঁর আশ্বাসেই ধর্না কর্মসূচি প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কেজরিওয়াল।

৭টা ৩৭: প্রজাতন্ত্র দিবসের কথা মাথায় রেখে কেজরিওয়ালকে ধর্না প্রত্যাহারের আবেদন জানাল কংগ্রেস।

৭টা ৩৫: বিজয় গোয়েল টুইট...

৬টা ৪৫: প্রসক্লাবে বৈঠক শেষ। বড় সিদ্ধান্ত ঘোষণা করবেন কেজরিওয়াল।

৫টা ৩২: দিল্লি প্রেস ক্লাবে বৈঠকে বসলেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল, যোগেন্দ্র যাদব, মনীষ সিশোডিয়া সহ অন্যান্য আপ নেতারা।

৫টা ৩০: প্রজাতন্ত্র দিবস প্রসঙ্গে দিল্লি মুখ্যমন্ত্রী আরবিন্দ কেজরিওয়ালের মন্তব্য স্বাধীনতা সংগ্রামীদের অপমানজনক। বললেন বিজেপি নেতা হর্ষ বর্ধন।

৫টা ২৬: বধুবার অরবিন্দ কেজরিওয়ালের ধর্নার কারণ নিয়ে সাংবাদিকদের সামনে আসবেন আম আদমির বিতর্কিত নেতা বিন্নি। দুপুর ১২টায় হবে সাংবাদিক সম্মেলন।

৫টা ১৪: শিল্প মন্ত্রী রঞ্জিত সিং সূর্যওয়ালা: দেশের সংবিধান ও প্রত্যেকটি নাগরিককে অসম্মান করছেন কেজরীওয়াল।

৫টা ১০: স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্ডের সঙ্গে দেখা করতে নর্থ ব্লকে পৌঁছলেন দিল্লি পুলিস কমিশনর।

৫টা: দিল্লি সরকারের সঙ্গে কাজ করা উচিৎ দিল্লি পুলিসের, মনে করছে সি পি আই এম। ভারতীয় মার্ক্সবাদী কমিউনিস্ট পার্টি দিল্লি আইন মন্ত্রী সোমনাথ ভারতীর দক্ষিণ আফ্রিকার মহিলাদের সম্পর্কে করা মন্তব্যের সমালোচনা করেছে।

৪টা ৫৩: দিল্লির আইন শৃঙ্কলা অবস্থা সম্পূর্ণ ভেঙ্গে পড়েছে। জানালেন রাজ্য সভার বিরোধী দলনেতা অরুণ জেটলি। তিনি বলেন, "নতুন দলটি প্রজাতন্ত্র দিবস ভণ্ডুল করার চেষ্টা করছে।"

৪টা ২০: আপ সমর্থকদের বিরুদ্ধে প্ররোচনার অভিযোগ আনলেন দিল্লি পুলিসের ডিসিপি এসবিএস ত্যাগী।

৪টে ১৪: আম আদমির সমর্থকদের শান্তি বজায় রাখার আর্জি সঞ্জয় সিংয়ের।

বিকেল ৪টে: আম আদমির প্রতিবাদকারী সমর্থকদের ফিরে যাওয়ার নির্দেশ দিল্লি পুলিসের। উত্তপ্ত পরিস্থিতি।

৩টে ৫৭: খণ্ডযুদ্ধে আহত বহু আপ সমর্থক। আহত বেশকিছু পুলিসকর্মীও।

৩টে ৫৭: পুলিসের ব্যারিকেড ভাঙলেন আপ নেতা কর্মীরা।

দুপুর 3.00টা-- দিল্লি মেট্রোর সামনে আপ কর্মীদের সঙ্গে পুলিসের ধস্তাধস্তি, পুলিসের লাঠিচার্জ

দুপুর 3.10টা-- ধরনায় অনড় কেজরিওযাল

১টা ৩২- সূত্রের খবর কোনও অবস্থাতেই কেজরিওয়ালের দাবির কাছে মাথানত করতে রাজি নয় কেন্দ্র।

১টা ১৭- মণীষ সিসোদিয়া জানালেন পিআইএল-এর বিরুদ্ধে কোর্টের রায়ের জন্য অপেক্ষা করবেন তাঁরা।

১টা ১৫- কেজরিওয়াল এবার নাটকটা বন্ধ করুক। এই সিস্টেম-এর জন্যই উনি মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন, একে নস্যাৎ করতে পারেন না উনি। মন্তব্য জেডিইউ প্রধান শরদ যাদবের।

১টা ০৫- রাইসিনা রোডে উত্তেজনা। আপ সমর্থকরা পুলিসের ব্যারিকেড ভাঙার চেষ্টা করলেন।

১২টা ৫০- সমাজবাদী পার্টির নেতা রাম গোপাল যাদব কেজরিওয়ালের ধরনার প্রতি সমর্থন জানালেন।

১২টা ৩৬- অরবিন্দ কেজরিওয়াল ক্ষেপে গেছে। আসলে উনি পদত্যাগ করতে চান। আসলে গাদা গাদা প্রতিশ্রুতি মোটেও পালন করতে পারবেন না উনি। তাই পালাবার ছুঁতো খুঁজছেন। - মন্তব্য কিরণ বেদীর।

১২টা ৩৫- ২৬ জানুয়ারিকে অপমান করার চেষ্টা করছে আপ। সীমান্তে আমাদের যে জওয়ানরা আমাদের রক্ষা করছেন তাঁদের অপমান করছেন কেজরিওয়াল। নস্কাল অধুষ্যিত অঞ্চলে মাওবাদীদের মত সংবিধানকে চ্যালেঞ্জ করছে আপ। - জাভদেকর

১২টা ৩২- সূত্রে খবর আপ-এর সঙ্গে সরাসরি সংঘাতে যেতে চাইছে না কেন্দ্র।

১২টা ৭- দিল্লির বিক্ষোভ আসলে কংগ্রেস আর আপ-এর যৌথ কর্মসূচী। শীলা দিক্ষিতের দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরকার কী পদক্ষেপ নিচ্ছে সেই প্রশ্নকে ধামাচাপা দেওয়ার জন্যই অরবিন্দ কেজরিওয়াল সবার দৃষ্টি অন্যদিকে ঘুরিয়ে দিতে চাইছেন। - মন্তব্য বিজেপি নেতা বিজয় গোয়েলের।

১২টা ০৫- অরবিন্দ কেজরিওয়ালের রকমসকম দেখে মনে হচ্ছে তাঁর মানসিকতা মাওবাদীদের মতই। - মন্তব্য বিজেপি নেতা বিজয় গোয়েলের।

বেলা ১২টা ০৫- আমরা বিক্ষোভে জন্য এই জায়গাটা মোটেও ঠিক করিনি। পুলিস আমাদের এখানেই থামিয়ে দিয়েছে। তাই বাধ্য হয়ে আমরা এখানেই বিক্ষোভ জানাচ্ছি। - মন্তব্য যোগেন্দ্র যাদবের।

১১টা ৫০- কংগ্রেস নেতা দ্বিগবিজয় সিং মন্তব্য করলেন অরবিন্দ কেজরিওয়ালের বিক্ষোভের পদ্ধতি দেখে মোটেই তিনি অবাক নন। যখন কেজরিওয়াল আইআরএস অফিসার ছিলেন তখনও তাঁর আইন ভাঙার প্রবণতা ছিল বলে জানিয়েছেন এই বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেতা।

১১টা ৩০- বিক্ষোভের মাধ্যমে দিল্লির জনজীবনে বিঘ্ন ঘটাচ্ছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল- এই মর্মে সুপ্রিম কোর্টে কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে পিআইএল দাখিল করা হল।

১১টা ৫- বিক্ষোভ করতে গিয়ে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী রাজধানীর সাধারণ মানুষের ন্যূনতম স্বাচ্ছ্যন্দের কথা ভুলেছেন। মন্তব্য কংগ্রেস নেতা ভক্ত চরন দাসের। যে ভাবে আপ-এর সমর্থক্রা বিক্ষোভ জানাচ্ছেন তা ভয়ঙ্কর, জঙ্গিদের সঙ্গে তুলনীয়। অভিযোগ ভক্ত চরণ দাসের।

১১টা- প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজ বানচাল করে দেওয়ার হুমকির জন্য অরবিন্দ কেজরিওয়ালের উচিৎ দেশের কাছে ক্ষমা চাওয়া।, মন্তব্য বিজেপির মুখপাত্র প্রকাশ জাভেদকার।

১০টা ৪৫- বৃষ্টির মধ্যেও দিল্লির রাস্তায় আপ-এর সদস্য, সমর্থকরা।

১০টা ২৫- কংগ্রেস নেতা মীম আফজল জানালেন নিজের মন্ত্রীদের বাঁচাবার জন্য বাড়াবাড়ি করছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। কেজরিওয়ালকে নিজের অহং ত্যাগ করতে বললেন তিনি। অনুরোধ করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলতে।

১০টা ৫- আপ-এর `প্রতিবাদ`-এর সঙ্গে দিল্লির ট্রাফিকের অবস্থা আরও শোচনীয় নিয়ে করে নামল বৃষ্টি।

৯টা ৪০- আপ-এর বিক্ষোভ সামলাতে ৪০০০ পুলিস নামল রাস্তায়। রয়েছে র‍্যাফ-ও।

৯টা ৩৫- প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজ বানচাল করার হুমকি দিলেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

৯টা ১২- বিজেপি, কংগ্রেস আর মিডিয়ার এক অংশ সাধারণ মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছে, মন্তব্য কেজরিওয়ালের।

৯টা ১০- আমদের সঙ্গে সঙ্গে সহযোগিতা না করে শিন্ডে ভারতকে সমস্যায় ফেলছেন। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীই ঠিক করবেন তিনি কোথায় বসবেন, মুখ্যমন্ত্রী ঠিক করতে পারেন শিন্ডে কোথায় বসবেন, শিন্ডের অধিকার নেই আমি কোথায় বসবো ঠিক করে দেওয়ার। - কেজরিওয়াল

৯টা ০৫- এই অঞ্চলটা জেলে পরিণত হয়েছে। ওরা যেটাকে অরাজকতা বলছে সেটা আসলে গণতন্ত্র, এই দেশে পরিবর্তন আসছে। - কেজরিওয়াল

সকাল ৯টা- অরবিন্দ কেজরিওয়াল ও অনান্য বিক্ষোভকারীরা রাইসিনা রোডে বিক্ষোভ কর্মসূচী সরিয়ে আনলেন। চারটি মেট্রো স্টেশন, প্যাটেল চক, সেন্ট্রাল সেক্রেটারিয়াট, উদ্যোগ ভবন ও রেস কোর্স এখনও বন্ধ। মধ্য দিল্লিতে বিপুল তীব্র যানজটের আশঙ্কা করা হচ্ছে।

সকাল থেকে ফের ধরনায় বসেছে আম আদমি পার্টি। পৌনে আটটা নাগাদ রেল ভবনের সামনে ব্যারিকেড ভাঙতে যান স্বয়ং দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। রেল ভবনের সামনে ফুটপাতেই রাত কাটিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। এই মুহূর্তে রাইসিনা রোডে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন তিনি। ২৬ জানুয়ারির মধ্যে দিল্লি পুলিসের দায়িত্ব কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের হাত থেকে দিল্লি সরকারের হাতে তুলে না দিলে প্রজাতন্ত্র দিবসের পর লক্ষ মানুষ দিল্লির রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ জানাবেন বলে হুমকি দিয়েছেন রাজধানীর মুখ্যমন্ত্রী। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের সামনে আপের বিক্ষেভ কর্মসূচী ঘিরে সকাল থেকেই জোরদার করা হয়েছে নিরাপত্তা। পুলিসের পাশাপাশি রয়েছে আধাসামরিক বাহিনী। নিয়ে আসা হয়েছে জল কামান। কার কথা শুনবে দিল্লি পুলিস? সেই প্রশ্ন নিয়েই গতকাল থেকে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে আম আদমি পার্টি। এর মধ্যেই সত্ পুলিস অফিসারদের ছুটি নিতে বলেছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী।



First Published: Tuesday, January 21, 2014 - 11:36


comments powered by Disqus