ঐতিহাসিক লোকপাল বিল লোকসভায় পাস, অনশনে ভেঙে আন্নার চোখে জল, দেশজুড়ে খুশি

Last Updated: Wednesday, December 18, 2013 - 13:09

লোকসভায় পাস হল লোকপাল বিল। আজ লোকসভায় ধ্বনিভোটে পাস হল লোকপাল বিল। লোকপাল বিল পাস হওয়ার খবর শোনার পরই অনশন ভাঙলেন আন্না হাজারে। বিলটি এবার রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানো হবে। বিলের জন্য আন্না হাজারাকেই কৃত্বি দিলেন রাহুল গান্ধী, সুষমা স্বরাজ। সিলেক্ট কমিটিকে ধন্যবাদ দিলেন আন্না।

লোকপাল বিল পাস হওয়ায় খুশি কংগ্রেস, বিজেপি। তবে আসল খুশিটা এল সাধারণ মানুষের কাছ থেকে। আন্না হাজারে যেদিন লোকপালের দাবিতে বড় আন্দোলন শুরু করে ছিলেন, সেদিন তাঁর পাশে দাঁড়িয়ে ছিল গোটা দেশ।

শুধু আন্নার মঞ্চে উপস্থিত থেকে নয়, ফেসবুকের মাধ্যমে লোকপাল বিলের দাবিতে সরকারের উপর চাপ বাড়াতে থাকে সাধারণ মানুষ। শেষ অবধি রাহুল গান্ধীও এই বিল পেসের জন্য চাপ দেয়। ভোটের আগে হওয়া সত্বেও বিজেপিও চায় যাতে লোকপাল বিল পাস হয়। তাই কংগ্রেস-বিজেপিকে এক সঙ্গে নিয়ে আসে লোকপাল বিল।

বিলকে সমর্থন করলেও কর্পোরেট জগতকে এর আওতায় আনার দাবি জানালেও তা খারিজ হয়ে যায়। গতকাল বেলা বারোটা থেকে রাজ্যসভায় লোকপাল বিল নিয়ে আলোচনা শুরু হয়।

শুরুতেই সমাজবাদি পার্টির হৈহট্টগোলের জেরে বেলা বারোটা পর্যন্ত সংসদ মুলতুবি হয়ে যায়। চার ঘণ্টা ধরে আলোচনার পর রাজ্যসভায় ধবনি ভোটে পাস হয় লোকপাল ও লোকায়ুক্ত বিল ২০১১।

লোকপাল আইনের বিজ্ঞপ্তি জারির একবছরের মধ্যে প্রতিটি রাজ্যে লোকায়ুক্ত গঠন করতে হবে।

গতকাল রাজ্যসভার মত আজও সমজাবাদি পার্টির সাংসদরা ওয়াকআউট করেন, তবে তাতে বিল পাস আটকায়নি। আন্না হাজারের দীর্ঘ আন্দোলনের আজ জয় হল, জয় হল সাধারণ মানুষের। এখন দেখার লোকপাল বিল আসার পর দেশে দুর্নীতি ঠিক কতটা কমে।

অনশন মঞ্চে দাঁড়িয়ে আন্না বললেন, এই বিল পাস হওয়ার পর দেশে ৪০ থেকে ৫০ শতাংশ দুর্নীতি কমবে।



First Published: Wednesday, December 18, 2013 - 13:01
comments powered by Disqus