বন্ধুর অভিযোগ অস্বীকার করল পুলিস

দিল্লি গণধর্ষণের ঘটনায় নিহত তরুণীর বন্ধুর অভিযোগ অস্বীকার করেছে দিল্লি পুলিস। তাদের দাবি, ঘটনার দিন রাতে ওই তরুণীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে কোনও দেরি হয়নি। তবে আহত তরুণীকে পুলিসের পিসিআর ভ্যানে কে তুলেছিলেন, পুলিসকর্মীরা, নাকি তরুণীর বন্ধু, সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের জবাব এড়িয়ে গিয়েছেন দিল্লি পুলিসের কর্তারা।  

Updated: Jan 5, 2013, 10:14 PM IST

দিল্লি গণধর্ষণের ঘটনায় নিহত তরুণীর বন্ধুর অভিযোগ অস্বীকার করেছে দিল্লি পুলিস। তাদের দাবি, ঘটনার দিন রাতে ওই তরুণীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে কোনও দেরি হয়নি। তবে আহত তরুণীকে পুলিসের পিসিআর ভ্যানে কে তুলেছিলেন, পুলিসকর্মীরা, নাকি তরুণীর বন্ধু, সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের জবাব এড়িয়ে গিয়েছেন দিল্লি পুলিসের কর্তারা।  
ঘটনাস্থল কোন থানা এলাকায় পড়বে তা নিয়ে একাধিক পিসিআর ভ্যানের মধ্যে বিবাদের অভিযোগও অস্বীকার করা হয়। দশটা একুশ মিনিটে পিসিআরে প্রথম ফোন গিয়েছিল। দশটা পঞ্চান্ন মিনিটের মধ্যে তরুণীকে সফদরজং হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়া হয় বলেই দিল্লি পুলিসের দাবি।
কিন্তু ঘটনার দিন রাতে আহত তরুণীকে পুলিসের পিসিআর ভ্যানে কে তুলেছিলেন। পুলিস কর্মী, নাকি তরুণীর বন্ধু। সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের যদিও স্পষ্ট কোনও জবাব দিতে পারেনি দিল্লি পুলিস।
এফআইআর নম্বর ৪১৩১২-১৭/১২/১২। এই একটি মামলা যে এভাবে তাদের ভিত টলিয়ে দেবে, তা হয়তো ভাবতেও পারেনি দিল্লি পুলিস। সেদিনের ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী নিগৃহীত সেই তরুণ। যাঁর চোখের সামনে একের পর এক ঘটে গিয়েছিল সব ঘটনা। তাঁর সাক্ষাত্কারে সেকারণেই সম্ভবত এত উদ্বিগ্ন দিল্লি পুলিস।