কংগ্রেসকে দুষে ইম্ফলে পরিবর্তনের ডাক তৃণমূল নেত্রীর

Last Updated: Wednesday, January 25, 2012 - 20:44

মণিপুরে নির্বাচনী প্রচারে এসে জোট শরিক কংগ্রেসকেই আক্রমণের নিশানা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সঙ্গেই তৃণমূল নেত্রীর গলায় ছিল পরিবর্তনের স্লোগান। ক্ষমতায় এলে মণিপুরে সশস্ত্র বাহিনীর বিশেষ ক্ষমতা আইন বা আফস্পা তুলে দেওয়ার বিষয়েও সচেষ্ট হবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। ঠিক যেভাবে, এক বছর আগে পশ্চিমবঙ্গে প্রতিটি জনসভায় মহাকরণের কুরসির দখল পেলে জঙ্গলমহল থেকে যৌথবাহিনী প্রত্যাহারের দৃঢ় অঙ্গীকার শোনা যেত তাঁর মুখে।
কেন্দ্রে যাদের সরকারে রয়েছেন সেই কংগ্রেসের বিরুদ্ধে পরিবর্তনের স্লোগানকে সামনে রেখেই মণিপুরে প্রচার শুরু করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কারণটা পুরোপুরি রাজনৈতিক কৌশলগত। ৬০ বিধায়কের এই রাজ্যের বিধানসভা ভোটে এবার ৪৭টি আসনে প্রার্থী দিয়েছে তৃণমূল। মূল প্রতিপক্ষ সোনিয়া গান্ধীর দল। আর তাই মণিপুরে বিগত এক দশকের কংগ্রেস সরকারের প্রশাসনিক ব্যর্থতা, দুর্নীতি নিয়ে সোচ্চার হয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। আর এরই পাশাপাশি ছিল নতুন মণিপুর গড়ার প্রতিশ্রুতিও।
তৃণমূল নেত্রীর এদিনের বক্তব্যে ছিল আফস্ফা প্রত্যাহার আর মানবাধিকার রক্ষার বিষয় সংক্রান্ত একঝাঁক প্রতিশ্রুতি। বিশেষত জনজাতি অধ্যুষিত `হিল মনিপুর` এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর বাড়াবাড়ি নিয়ে যথেষ্ট ক্ষোভ রয়েছে স্থানীয় গ্রামবাসীদের মধ্যে। তৃণমূলের রাজ্য সভানেত্রী কিম গাংতে নিজেও কুকি জনজাতির প্রতিনিধি। তাই ভোটপ্রচারে আফস্পা বিতর্ককে অন্যতম ইস্যু করতে চাইছে তৃণমূল নেতৃত্ব। এদিন বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে ইম্ফল পৌঁছে বিমানবন্দর থেকে সরাসরি জওহরলাল নেহরু ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্স হাসপাতালে গিয়ে ইরম শর্মিলা চানুর সঙ্গে দেখা করে মনিপুরবাসীর কাছে এই আফস্পা বিরোধী অবস্থানই তুলে ধরতে চেয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আফস্পা-র প্রত্যাহারের দাবিতে বিগত ১১ বছর ধরে অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন শর্মিলা চানু।



First Published: Wednesday, January 25, 2012 - 20:53


comments powered by Disqus