মমতার অনাস্থায় সংখ্যার অভাব পরিষ্কার

Last Updated: Monday, November 19, 2012 - 16:14

অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে তৃণমূলের ঘোষণার পর ঠিক কোথায় দাঁড়িয়ে সংসদের সমীকরণ? রাজনৈতিকমহলে আপাতত সেই জল্পনাই তুঙ্গে। সাধারণভাবে ৫০জন সাংসদের সমর্থন ছাড়া অনাস্থা আনা সম্ভব নয় লোকসভায়। কিন্তু তবুও মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সমর্থন আদায়ের জন্যে ইতিমধ্যেই বিজেপির সঙ্গে কথাবার্তা শুরু হয়েছে তাঁর। কথা চলছে এআইএডিএমকে নেত্রী জয়ললিতার সঙ্গেও। দেখে নেব সংখ্যাতত্ত্বের বিচারে এই মূহুর্তে কে কোথায় দাঁড়িয়ে।
এফডিআই ইস্যুতে লোকসভায় অনাস্থা প্রস্তাব আনলে এই মুহূর্তে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পক্ষে রয়েছে, তৃণমূল কংগ্রেসের ১৯জন। সমর্থন পাওয়ার উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে বিজেপির ১১৪ সাংসদের। তৃণমূলের অনাস্থা প্রস্তাবে ইতিমধ্যেই সমর্থনের ইঙ্গিত দিয়েছেন জয়ললিতা। সেক্ষেত্রে মিলবে এআইএডিএমকের ৯ জনের সমর্থন। অর্থাত্‍, এই মুহুর্তে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পেতে পারেন ১৪২ জন সংসদের সমর্থন।
 
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনাস্থার বিরোধিতার ছবিটা কেমন? অনাস্থার বিরোধিতায় নিশ্চিত ভোট কংগ্রেসের ২০৩ জন, এনসিপির ৯ জন, আরজেডির ৪ জন সাংসদের। সরকার সঙ্কটে পড়লে ইতিমধ্যেই সাহায্যের আশ্বাস দিয়ে রেখেন উত্তর প্রদেশের দুই নেতা-নেত্রী মুলায়ম সিং এবং মায়াবতী। সেক্ষেত্রে বিএসপির ২১ জন এবং এসপির ২২ জন সাংসদের সাংসদের সমর্থনও পাবে মনমোহন সরকার। সবমিলিয়ে সরকারের পাশে রয়েছে ২৫৯ সাংসদের ভোট।
 
এছাড়া উল্লেখযোগ্য সাংসদ রয়েছে চার বামদলের। ২৩ জন। তারা ইতিমধ্যেই এফডিআই ইস্যুতে সংসদে আলোচনা ও ভোটাভুটির দাবি জানিয়েছে। এর বাইরে বড় সংখ্যক সাংসদ রয়েছে নীতিশ কুমারের জেডিইউয়ের। ২০ জন। এফডিআই ইস্যুতে দলীয় অবস্থান নিয়ে জেডিইউয়ের দুই শীর্ষ নেতা শরদ যাদব এবং নীতীশ কুমারের ভিন্ন মত রয়েছে। স্বভাবতই তাদের অবস্থান কী হবে তা পরিষ্কার নয়।
 
সংসদ-সমীকরণের বাইরে যে রাজনৈতিক প্রশ্নটি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে তা হল তৃণমূল কংগ্রেস- বিজেপির নতুন করে তৈরি হওয়া সম্পর্ক। ৫০ জন সাংসদ না থাকার কারণে অনাস্থা প্রস্তাব তুলতে তৃণমূলনেত্রী বিজেপির সাহায্য চাইছেন। প্রশ্ন উঠছে যদি বিজেপি একই ইস্যুতে অনাস্থা প্রস্তাব আনে তাহলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সমর্থন করবেন কী?
 



First Published: Monday, November 19, 2012 - 16:14


comments powered by Disqus