মরিনহো-রোনাল্ডোদের রথে চাপা পড়লেন ফার্গুসন-রুনি

মরিনহো-রোনাল্ডোদের রথে চাপা পড়লেন ফার্গুসন-রুনি

মরিনহো-রোনাল্ডোদের রথে চাপা পড়লেন ফার্গুসন-রুনিরিয়াল মাদ্রিদ (২) ম্যান ইউ (১)

রোনাল্ডোর শিল্প চলছে, মোরিনহোর মগজাস্ত্র আরও ক্ষুরধার হয়েছে। আর তাই রিয়াল মাদ্রিদের বিজয় রথ একেবারে অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছে। রোনাল্ডো-মরিনহোর অদৃশ্য দড়িতে চলা সেই রিয়াল মাদ্রিদ রথ পৌঁছে গেল ইউরোপের সেরা ক্লাব প্রতিযোগিতার শেষ আটে। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের দ্বিতীয় রাউন্ডের ফিরতি লেগে ম্যানচেস্টার ইউনাটেডকে ২-১ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠল রিয়াল মাদ্রিদ। প্রি কোয়ার্টার ফাইনালে দু লেগের ফলাফল মিলিয়ে ৩-২ গোলে হারিয়ে ফাগুর্সনের স্বপ্নভঙ্গ করলেন মরিনহো। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে স্যান্টিয়াগো বার্নাবিউতে প্রথম লেগে ১-১ গোলে ড্র হয়েছিল।

ওল্ড ট্রাফোর্ডে ঘটনাবহুল ম্যাচে ম্যান ইউ হারল এক গোলে এগিয়ে থেকেও। রোনাল্ডোর নস্টালজিয়ার এই ম্যাচে আত্মঘাতী গোল থেকে লাল কার্ড সব কিছুই ঘটল।

ম্যাচের দ্বিতীয়ার্ধটা ছিল রোমাঞ্চ আর গতির অদ্ভূত এক মিশেল। বিরতির পর সার্জিও রামোসের আত্মঘাতী গোলে পিছিয়ে পরার পর শেষ আটে ওঠার স্বপ্নভঙ্গ হতে চলেছিল রিয়াল মাদ্রিদের। সেই সময়ই ম্যানচেস্টারের এক সময়ের রাজকুমার রোনাল্ডো বিদ্রোহী হয়ে উঠলেন তাঁর পুরনো ক্লাবের বিরুদ্ধে। সঙ্গে ফার্গুসনের গোদের ওপর বিষ ফোঁড়ার মত কাজ করে ন্যানির লাল কার্ড। ম্যাচের ৫৬ মিনিটে রেফারির বিতর্কিত লাল কার্ডে ন্যানি মাঠ ছাড়লে বেকায়দায় পড়ে যায় ম্যান ইউ। এরপর আর নয়বারের ইউরোপ সেরা দলটির সঙ্গে পেরে উঠেনি স্যার আলেক্স ফার্গুসনের শিষ্যরা। ৬৬ মিনিটে লুকা মডরিচের গোলে ম্যাচে সমতা ফেরায় রিয়াল। এর অল্প কিছুক্ষণ পর ম্যাচের ৬৯ মিনিটে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর গোলে চ্যাম্পিয়ান্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে যাওয়ার পথ সহজ করে নেয় রিয়াল। অন্যদিকে, শাখতার দনেৎস্ককে ৩-০ গোলে হারিয়ে শেষ আটে উঠল বুরুশিয়া ডর্টমুন্ড ।এদিকে পুরনো দলের বিরুদ্ধে গোল করে রিয়ালকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ আটে পৌঁছে দেওয়ার পর অদ্ভুত অনুভূতি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন রোনাল্ডো। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে গোল করার পর কোনও উতসব করেননি পর্তুগিজ তারকা।রোনাল্ডো জানাচ্ছেন,রিয়াল জেতায় অবশ্যই তিনি খুশি। তবে ম্যান ইউয়ের জন্যও খারাপ লাগছে। কোনওদিন রিয়ালের বিপক্ষে মাঠে নামলেও একই অনুভূতি হবে বলে জানিয়েছেন পর্তুগিজ সুপারস্টার। মরিনহো-রোনাল্ডোদের রথে চাপা পড়লেন ফার্গুসন-রুনি
শেষ ষোলর ড্র অনুষ্ঠিত হওয়ার পর থেকেই আলোচনার কেন্দ্রে ছিল ২০০৯ সালে রেকর্ড ট্রান্সফার ফি’তে রিয়ালে পাড়ি দেওয়া ম্যান ইউ তারকা রোনাল্ডোর ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ফেরা। ম্যান ইউর ভক্তদের কাছ থেকে উষ্ণ অভ্যর্থনাই পেয়েছেন তিনি। গোল করার পর উদযাপন না করে ম্যান ইউর ভক্তদের কাছ থেকে ক্ষমাই চেয়ে নেন তিনি। দর্শকদের আনন্দের বাড়তি উপলক্ষ্য এনে দিয়েছিলেন রায়ান গিগস। অভিজ্ঞ এই ফুটবলার খেলতে নেমেছিলেন তার একহাজারতম ম্যাচ।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কোয়ার্টার ফাইনালে--

রিয়াল মাদ্রিদ, বুরুশিয়া ডর্টমুন্ড



First Published: Wednesday, March 06, 2013, 21:48


comments powered by Disqus