টাইম পত্রিকায় সমলোচিত মনমোহন

টাইম পত্রিকায় সমলোচিত প্রধানমন্ত্রী

টাইম পত্রিকায় সমলোচিত প্রধানমন্ত্রীভারতের আর্থিক সংস্কারের জনক ড.মনমোহন সিং প্রধানমন্ত্রী হিসাবে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে ব্যর্থ। বিশ্বখ্যাত টাইম ম্যাগাজিনে এভাবেই সমালোচনা করা হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর। এশিয়া সংষ্করণের প্রচ্ছদে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর ছবি দিয়ে তাঁকে সম্পূর্ণ ব্যর্থ প্রশাসক হিসাবে উল্লেখ করেছে টাইম।

ঊনআশি বছরের প্রধানমন্ত্রীর প্রশাসনিক যোগ্যতাকে সরাসরি চ্যালেঞ্জ করে ভারতীয় অর্থনীতির বর্তমান দুরাবস্থার জন্য কংগ্রেস পরিচালিত দ্বিতীয় ইউপিএ সরকারকেই দায়ি করেছে টাইম। পত্রিকাটিতে আরও বলা হয়েছে, ঘরে-বাইরে বিনিয়োগকারীরা অপেক্ষা করলেও, বিনিয়োগের সম্ভাবনার থেকে দুর্নীতি, স্বজন-পোষন ও শরিকি দ্বন্দ্ব সামলানোতে ব্যস্ত বেশি বর্তমান সরকার।
পত্রিকাটি এও বলেছে তিন বছর আগে যে আত্মবিশ্বাস নিয়ে দ্বিতীয় বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন মনমোহন সিং এখন তার যথেষ্ট অভাব। যার মূল কারণ নিজের দফতর ছাড়াও অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ দফতরের মন্ত্রী, আমলাদের কাজের শ্লথতা। টাকার মুল্য হ্রাস, ধীর অর্থনৈতিক বৃদ্ধি, যেগুলোকে কঠোর হাতে নিয়ন্ত্রণ করা উচিত, তা সামাল দিতে পারছে না বর্তমান সরকার। টাইমের মতে বর্তমানে ভারতের যা হাল তাতে দেশের ভোটাররাই যথেষ্ট চিন্তিত সরকারের ভবিষ্যত কর্মপন্থা নিয়ে।

প্রণব মুখোপাধ্যায় রাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী হওয়ার পরে অর্থমন্ত্রকের দায়িত্ব মনমোহনের হাতে। টাইমের মতে তাই তাঁর উচিত এখন থেকে ২০ বছর আগে ফিরে যাওয়া, যখন তার নীল পাগড়িকে বলা হতো ভারতের সূর্যোদয়। সেসময় অর্থমন্ত্রী হিসাবে তাঁর সাফল্যও ছিল প্রশ্নাতীত।

বর্তমানে ২জি কাণ্ড থেকে শুরু করে আন্নার সরকার বিরোধী আন্দোলন সবেতেই কোনঠাসা সরকার। সরকারের সঙ্গে সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী হিসেবেও এর ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ। সঙ্গে শরিকি চাপে গুরুত্বপূর্ণ সংস্কারগুলির জন্য সিদ্ধান্ত নিতে ব্যর্থ সরকার। এর থেকে বেরিয়ে এখনই যদি সব প্রতিকূলতার ঊর্দ্ধে গিয়ে সংস্কারের কাজে হাত না দেওয়া হয়, তাহলে ভারতের সামনে সমূহ বিপদ। এরকম চলতে থাকলে ২০১৪-র আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের ফিরে আসার সম্ভাবনা ক্ষীণ। পত্রিকাটির অভিমত ইউপিএ-র চেয়ারপার্সন সোনিয়া গান্ধীর সঙ্গে মনমোহন সিং এর যে বোঝাপড়াকে সদর্থক ভাবে কাজে লাগানো।

First Published: Sunday, July 08, 2012, 20:45


comments powered by Disqus