ইস্তফা দিলেন অর্জুন মুন্ডা

ঝাড়খণ্ডের বিধানসভা ভেঙে দেওয়ার সুপারিশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী অর্জুন মুন্ডা। আজ মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্তের পর রাজ্যপাল সৈয়দ আহমেদের কাছে ইস্তফা পত্র তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী। অন্যদিকে আজই ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার বিধায়করা হেমন্ত সোরেনের নেতৃত্বে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করে সমর্থন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত জানিয়ে এসেছেন। রাজ্যপালের হাতে সমর্থন প্রত্যাহারের চিঠি তুলে দিয়েছেন মুক্ত মোর্চার নেতা শিবু সোরেন।

Updated: Jan 8, 2013, 10:55 AM IST

ঝাড়খণ্ডের বিধানসভা ভেঙে দেওয়ার সুপারিশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী অর্জুন মুন্ডা। আজ মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই সিদ্ধান্তের পর রাজ্যপাল সৈয়দ আহমেদের কাছে ইস্তফা পত্র তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী। অন্যদিকে আজই ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার বিধায়করা হেমন্ত সোরেনের নেতৃত্বে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করে সমর্থন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত জানিয়ে এসেছেন। রাজ্যপালের হাতে সমর্থন প্রত্যাহারের চিঠি তুলে দিয়েছেন মুক্ত মোর্চার নেতা শিবু সোরেন।
ইতিমধ্যেই এই পরিস্থিতির সুযোগ কাজে লাগাতে চাইছে কংগ্রেস। সূত্রে খবর, ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার নেতৃত্বের সঙ্গে কথাবার্তা শুরু করেছে রাজ্য কংগ্রেস।
মুখ্যমন্ত্রীত্বের দাবিতে বিজেপি সরকারের ওপর থেকে সমর্থন প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা। বিরাশি আসনের ঝাড়খণ্ড বিধানসভায় ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চার বিধায়ক সংখ্যা ১৮। বিজেপিরও বিধায়কও ১৮ জন। বিজেপির পক্ষে সমর্থন রয়েছে অল ঝাড়খণ্ড স্টুডেন্টস ইউনিয়নের ৬ বিধায়কের। সংযুক্ত জনতা দলের দুই বিধায়কও রয়েছে বিজেপির সঙ্গে। কিন্তু মুক্তি মোর্চা সমর্থন প্রত্যাহারে সংখ্যালঘু হয়ে পড়ল মুন্ডা সরকার।