চন্দ্রবাবু নাইডুকে ফোন প্রধানমন্ত্রীর, কেন্দ্র থেকে ইস্তফা দুই টিডিপি মন্ত্রীর

তেলেঙ্গানার সঙ্গে রাজ্যভাগের পর নতুন অন্ধ্র গড়তে সাড়ে ১২ হাজার কোটি টাকার বাজেট বরাদ্দে খুশি নন মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু। পাছে প্যান্ডোরার বাক্স খুলে যায়, সেই ভয়ে তাঁর দাবি মেনে অন্ধ্রকে বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা দিতে নারাজ কেন্দ্র।

Updated: Mar 8, 2018, 06:53 PM IST
চন্দ্রবাবু নাইডুকে ফোন প্রধানমন্ত্রীর, কেন্দ্র থেকে ইস্তফা দুই টিডিপি মন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদন : কেন্দ্রে টিডিপি-বিজেপি অচলাবস্থার মাঝে অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রবাবু নাইডুকে ফোন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাদের মধ্যে প্রায় ১০ মিনিট কথা হয়। দুই নেতার মধ্যে দাবিদাওয়া নিয়েও বিস্তর আলোচনা হয়েছে। তবে এখনই কোনও প্রতিশ্রুতি পূরণের বিষেয় কথা হয়নি বলে সূত্রে খবর।

বেশ কিছুদিন ধরেই শিবসেনা এনডিএ ছাড়ার ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছে। এবার সেই পথেই হেঁটে আরও এক ধাপ এগিয়ে গেল টিডিপি। বাজেটে অন্ধ্রপ্রদেশের জন্য যথেষ্ট বরাদ্দ না থাকায় বুধবার মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডুর নির্দেশে মন্ত্রিসভা থেকে টিডিপি-র বেরিয়ে আসার ইঙ্গিত মেলে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভায় থাকা টিডিপি-র দুই মন্ত্রী অশোক গজপতি রাজু এবং ওয়াইএস চৌধুরি আজ সন্ধ্যেয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে ইস্তফা দিয়েছেন বলে খবর।

আরও পড়ুন- মোদীর হাত ছাড়লেন চন্দ্রবাবু

তেলেঙ্গানার সঙ্গে রাজ্যভাগের পর নতুন অন্ধ্র গড়তে সাড়ে ১২ হাজার কোটি টাকার বাজেট বরাদ্দে খুশি নন মুখ্যমন্ত্রী চন্দ্রবাবু নাইডু। পাছে প্যান্ডোরার বাক্স খুলে যায়, সেই ভয়ে তাঁর দাবি মেনে অন্ধ্রকে বিশেষ রাজ্যের মর্যাদা দিতে নারাজ কেন্দ্র। সংসদের ভিতরে-বাইরে রোজ এই নিয়ে চলছে টিডিপি সাংসদদের বিক্ষোভ। সূত্রের খবর, দলে প্রায় সব নেতারাই এনডিএ ছাড়ার পক্ষে। টিডিপির বৈঠকে চন্দ্রবাবু নাইডুর মন্তব্য, ''কেন্দ্রীয় সরকার অন্ধ্রের আবেগকে অপমান করছে। রাজ্যের স্বার্থের সঙ্গে আপোষ করা হবে না।''

এদিকে, কেন্দ্র থেকে টিডিপি বিচ্ছেদের কথা ঘোষণা করা মাত্রই, অন্ধ্রপ্রদেশ সরকারে সঙ্গে জোটে থাকা বিজেপি বিধায়করাও ইস্তফা দিয়ে দেন। মনে করা হচ্ছে চন্দ্রবাবু নাইডুর টিডিপি-কে চাপে রাখতেই নয়া কৌশল বিজেপির।

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close