মোদীই আসল চ্যালেঞ্জার, প্রকাশ্যেই মেনে নিলেন চিদাম্বরম, সঙ্গে রাহুল গান্ধীকে দিলেন পরামর্শ

Last Updated: Sunday, November 10, 2013 - 16:30

রাজনীতিতে অনেক কিছুই সামনে বলার উপায় থাকে না, কিন্তু চাপ বাড়লে কোনও কোনও সময় বলতে বাধ্য হতে হয়। সেই রকমই কি কিছু হল কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমের? রবিবার গোয়ার `থিঙ্ক ফেস্ট`নামের অনুষ্ঠানে চিদম্বরম বললেন, "মানতে বাধা নেই যে রাজনৈতিক দল হিসাবে আমাদের কাছে মোদী চ্যালেঞ্জার। আমার ওঁকে কিছুতেই গ্রাহ্য করতে পারি না। ওঁকে দেশের প্রধান বিরোধী দল বিজেপি প্রধান নেতা হিসাবে তুলে ধরেছে, সুতরাং উনি যাই বলুন না কেন মোদীকে আমাদের গুরুত্ব দিতেই হবে।"
সঙ্গে যদিও এরপর কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী বলেছেন,মোদীর আদর্শ, দর্শন এবং প্রকাশ্য জনসভায় যে ধরনের ভাষায় কথা বলেন তা নিয়ে তিনি চিন্তিত। এখনও পর্যন্ত মোদী কোনও বড় ইস্যুতে মুখে না খুলে শুধু নির্বাচন প্রতিশ্রুতি দিয়ে আসছেন এমন অভিযোগও করলেন চিদাম্বরম।
রাহুল গান্ধীকে দলের ও সরকারের প্রধান নেতা বানানোরও দাবি জানিয়ে রাখলেন চিদাম্বরম। কারণ হিসাবে বললেন, এখন সময় এসেছে তরুণ প্রজন্মের কাছে এগিয়ে যাওয়ার মশালটা তুলে দেওয়ার। দেশে যথেষ্ট সংখ্যেক তরুণ পুরুষ ও মহিলা আছেন যাঁরা সরকারে সামিল হয়ে সুশাসন দিতে পারেন। রাহুলকে প্রধানমন্ত্রী বানানোর দাবি জানানোর পরেই অবশ্য সোনিয়া তনয়কে পরামর্শও দিয়েছেন অভিজ্ঞ এই রাজনীতিবিদ। চিদম্বরম বলেছেন, জনসভায় রাহুলের উচিত দেশের বড় ইস্যুগুলোকে নিয়ে মতামত পরিষ্কাক করা।
বিজেপি নরেন্দ্র মোদীকে আগামী লোকসভা নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসাবে তুলে ধরার পর এতদিন কংগ্রেসের শীর্ষে নেতৃত্ব প্রকাশ্যে যা বলছিলেন, তার মানে দাঁড়ায় গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রীকে তাদের কাছে কোনও চ্যালেঞ্জ নয়। কিন্তু দিন যত এগোচ্ছে জনসভা মোদীর সুর তত চড়ছে। মোদী ময়দানে নামার পর প্রাক নির্বাচনী সমীক্ষাতেও কংগ্রেস অনেকটা ব্যাকফুটে চলে যাচ্ছে। মোদী ছায়া যে দীর্ঘ হচ্ছে সেটা চিদম্বরমরে এই কথাতেই স্পষ্ট। তবে সে ছায়ায় কংগ্রেস ছেকে য়াবে, নাকি বিপদ থেকে রক্ষা পাবে সেটাই সবচেয়ে বড় প্রশ্ন। তবে চিদম্বরমের আজকের কথার পর মোদীকে নিয়ে কংগ্রেসকে বলতেই হচ্ছে, `হেট হিম অর লাভ হিম ইউ ক্যান নট ইগনোর হিম।`



First Published: Sunday, November 10, 2013 - 17:55


comments powered by Disqus