সৌন্দর্যায়নের ঠেলায় এবার বাস্তুহারা হলেন জওহরলাল নেহেরু

পুরনিগমের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবারই সেখানে বিক্ষোভ দেখায় কংগ্রেস ও সমাজবাদী পার্টির কর্মী-সমর্থকরা। তাদের দাবি, পরিকল্পনা করে ওই মূর্তি সরানো হয়েছে। 

Updated: Sep 14, 2018, 03:36 PM IST
সৌন্দর্যায়নের ঠেলায় এবার বাস্তুহারা হলেন জওহরলাল নেহেরু

নিজস্ব প্রতিবেদন: জন্মভূমিতেই উতখাত হলেন দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহেরু। সৌন্দর্যায়নের জন্য তাঁর পূর্ণাবয়ব মূর্তি সরিয়ে ফেলল এলাহাবাদ পুরনিগম। বৃহস্পতিবার শহরের বালসান চৌমাথা থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর মূর্তি। পুরনিগমের তরফে জানানো হয়েছে, ২০১৯-এর কুম্ভমেলার আগে সৌন্দর্যায়নের স্বার্থেই সরানো হয়েছে ওই মূর্তি। 

ঘটনায় ক্ষোভ উগরে দিয়েছে স্থানীয় কংগ্রেস নেতৃত্ব। তাদের দাবি, এই ঘটনা প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে অপমানের নামান্তর। 

পুরনিগমের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবারই সেখানে বিক্ষোভ দেখায় কংগ্রেস ও সমাজবাদী পার্টির কর্মী-সমর্থকরা। তাদের দাবি, পরিকল্পনা করে ওই মূর্তি সরানো হয়েছে। এমনকী ক্রেন আটকে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের বিরুদ্ধে স্লোগান দেন তারা। 

সম্পত্তি হাতাতে শ্বশুর-শাশুড়িকে 'নগ্ন' করে মার পুত্রব্ধূর

একই সঙ্গে বিরোধীদের প্রশ্ন, সৌন্দর্যায়নের নামে জওহরলাল নেহেরুর মূর্তি সরানো হলেও ওই রাস্তার ওপরেই বহাল তবিয়তে রয়েছে দীনদয়াল উপাধ্যায়ের একটি মূর্তি। কংগ্রেসের দাবি, মূর্তিটি সরিয়ে পাশে একটি জায়গায় রাখা হয়েছে। এভাবে সাধারণ মানুষের সামনে থেকে নেহেরুর আদর্শ সরিয়ে ফেলার চেষ্টা হচ্ছে বলে দাবি তাদের। কেন নেহেরুর মূর্তি সরানো হল তা নিয়ে মুখ খুলতে নারাজ স্থানীয় প্রশাসনিক কর্তারা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক আধিকারিক জানিয়েছেন, কুম্ভ মেলার আগে রাস্তা চওড়া করা দরকার। নেহেরুর মূর্তিটি রাস্তার মাঝখানে ছিল তাই সরানো হয়েছে। সেটিকে পাশে একটি উদ্দ্যানে বাসানো হবে।  

 

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close