লোকসভা ভোটের আগে কেন্দ্রের মোক্ষমচাল, আসছে সপ্তম পে কমিশন

লোকসভা ভোটের মুখে মোক্ষম চাল দিল কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের জন্য তৈরি হচ্ছে নতুন পে কমিশন। কমিশনের সুপারিশ কার্যকর হবে ২০১৬-এর জানুয়ারি থেকে। কেন্দ্রের এই ঘোষণায় প্রায় ৫০ লক্ষ কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী এবং ৩৫ লক্ষ পেনশনভোগী উপকৃত হবেন।

Updated: Sep 25, 2013, 06:29 PM IST

লোকসভা ভোটের মুখে মোক্ষম চাল দিল কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের জন্য তৈরি হচ্ছে নতুন পে কমিশন। কমিশনের সুপারিশ কার্যকর হবে ২০১৬-এর জানুয়ারি থেকে। কেন্দ্রের এই ঘোষণায় প্রায় ৫০ লক্ষ কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী এবং ৩৫ লক্ষ পেনশনভোগী উপকৃত হবেন।
পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে কংগ্রেস সরকার এই ঘোষণা করেছে বলে অভিযোগ বিরোধীদের। বিরোধী শিবিরের এই অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছে কংগ্রেস। বুধবার কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের জন্য সপ্তম পে কমিশন গঠনের কথা ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। ২০১৬-এর পয়লা জানুয়ারি থেকে লোকসভা ভোটের আগে মোক্ষম চাল কেন্দ্রের, বসছে সপ্তম পে কমিশন
এই কমিশনের সুপারিশ কার্যকর হবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম। পে কমিশনের চেয়ারপার্সন এবং সদস্য  কারা হবেন কিছুদিনের মধ্যে
চূড়ান্ত  হবে। কেন্দ্রীয় সরকারের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন কংগ্রেস সাংসদ অজয় মাকেন।
স্বাধীনতার পর থেকে ছটি পে কমিশন গঠিত হয়েছে। ষষ্ঠ পে কমিশনের সুপারিশ কার্যকর হয়েছিল ২০০৬ সালের পয়লা জানুয়ারি। সপ্তম পে কমিশনের সুপারিশ কার্যকর হলে ৫০ লক্ষ কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী এবং ৩৫ লক্ষ পেনশনভোগী উপকৃত হবেন। বিরোধীদের অভিযোগ, নভেম্বর মাসে পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে এই ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। বিরোধীদের অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে কংগ্রেস শিবির।
অজয় মাকেন বলেছেন, প্রতি দশকের তৃতীয় বছর পে কমিশন গঠিত হয়। এনডিএ সরকারকে পাল্টা বিঁধে  তিনি বলেছেন, এনডিএ আমলে ২০০৩ সালে পে কমিশন গঠিত হওয়ার কথা থাকলেও তা হয়নি। ২০০৪ সালে ইউপিএ সরকার ক্ষমতায় এসে ষষ্ঠ পে কমিশন গঠনে উদ্যোগী হয়। এভাবেই বিজেপিকে পাল্টা জবাব দিয়েছেন অজয় মাকেন।