একটি ছোট ঘটনা, তুচ্ছ ঘটনা: মুখ্যমন্ত্রী

সুদীপ্তর মৃত্যুর পর সেই পুরোনো অবস্থানে ফিরে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বেঙ্গালুরু একটি অনুষ্ঠানে পৌঁছিয়ে পুলিসের হেফাজতে ছাত্র মৃত্যুর ঘটনাকে তিনি `ছোট ঘটনা`, `তুচ্ছ ঘটনা` বললেন। এদিন তিনি আরও বলেন, `এটি দুর্ঘটনা। কোনও পুলিসি অত্যাচার হয়নি। ময়না তদন্তের রিপোর্টে দুর্ঘটনাই বেরোবে।` তদন্ত চলাকালীনই মুখ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্য নতুন করে বিতর্ক সৃষ্টি করল।

Updated: Apr 4, 2013, 05:52 PM IST

সুদীপ্তর মৃত্যুর পর সেই পুরোনো অবস্থানে ফিরে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বেঙ্গালুরু একটি অনুষ্ঠানে পৌঁছিয়ে পুলিসের হেফাজতে ছাত্র মৃত্যুর ঘটনাকে তিনি `ছোট ঘটনা`, `তুচ্ছ ঘটনা` বললেন। এদিন তিনি আরও বলেন, `এটি দুর্ঘটনা। কোনও পুলিসি অত্যাচার হয়নি। ময়না তদন্তের রিপোর্টে দুর্ঘটনাই বেরোবে।` তদন্ত চলাকালীনই মুখ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্য নতুন করে বিতর্ক সৃষ্টি করল।
অন্যদিকে আজই সাংবাদিক সম্মেলনে মৃত্যু নিয়ে ব্যাখ্যা দেন কলকাতা পুলিসের জয়েন্ট সিপি হেডকোয়ার্টার জাভেদ শামিম।
তিনি জানান, `কীভাবে সুদীপ্ত গুপ্তের মৃত্যু সেই নিয়ে তদন্ত চলছে।` তদন্ত শেষ হওয়ার আগে কোনওরকম মন্তব্য করা উচিত নয় বলে জানিয়েছেন শামিম। মৃত্যু সম্পর্কে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যে তদন্তে প্রভাব ফেলতে পারে কি না সেই বিষয় প্রশ্ন করা হলে সাংবাদিকদের এড়িয়ে যান শামিম। এমনকী ঘটনার ৪৮ ঘণ্টা কেটে যাওয়ার পর ঘটনাস্থলে ফরেনসিক দল যাওয়ায় তথ্যপ্রমাণ কতটা সংরক্ষিত থাকবে, সেই প্রশ্নও এড়িয়ে যান জাভেদ শামিম।
তিনি জানান ভোঁতা কিছুর আঘাত লাগে সুদীপ্ত গুপ্তর মাথায়। অমসৃণ মেঝেতে পড়ে যাওয়ার ফলে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে দেহে। প্রাথমিক ময়না তদন্ত রিপোর্টে এমন তথ্যই পাওয়া গেছে বলে দাবি করলেন জয়েন্ট সিপি হেড কোয়ার্টার জাভেদ শামিম। সুদীপ্তর দেহে রড, কাচের আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি বলেও জানিয়েছেন তিনি।
অন্যদিকে সুদীপ্ত গুপ্তর মৃত্যু নিয়ে পুলিসি অত্যাচারের যে অভিযোগ উঠছে, ময়নাতদন্তের প্রাথমিক রিপোর্টে সেই অভিযোগই আরও জোরালো হচ্ছে। শুধুমাত্র মাথাতেই নয়, সুদীপ্তর শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গিয়েছে। তাঁর চোয়ালে গুরুতর জখম রয়েছে। দু চোখের মাঝখানে, অর্থাত্‍ কপালেও মিলেছে আঘাতের চিহ্ন। ময়নাতদন্তের ভিডিও রেকর্ডিং করা হয়েছে।