গ্যাস পাইপলাইন নিয়ে তেহরান-ইসলামাবাদ ঐকমত্য

গ্যাস পাইপলাইন নিয়ে তেহরান-ইসলামাবাদ ঐকমত্য

গ্যাস পাইপলাইন নিয়ে তেহরান-ইসলামাবাদ ঐকমত্যমার্কিন নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও গ্যাস পাইপলাইন প্রকল্পের ভবিষ্যত নিয়ে ইরানকে আশ্বস্ত করল পাকিস্তান। দ্রুত এই কাজ করা হবে বলে পাকিস্তানে সফররত ইরানের প্রেসিডেন্ট আহমেদিনেজাদকে আশ্বাস দিয়েছেন পাক-প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ রাজা গিলানি। ইরানের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে বালুচিস্তানের বিদ্যুত্‍ কেন্দ্র নিয়েও আশাপ্রকাশ করেছেন পাক-প্রধানমন্ত্রী।

পরমাণু প্রকল্প নিয়ে ইরানের ওপর নিষেধাজ্ঞা চাপিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমি দেশগুলি। এরপরই পাইপলাইন প্রকল্পের  ভবিষ্যত নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে জল্পনা শুরু হয়। এমনকী ইরানের সঙ্গে পাইপলাইন প্রকল্প এগিয়ে না নিয়ে যাওয়ার জন্য পাকিস্তানের উপর চাপ বাড়ায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রও। সেই চাপের মুখে দাঁড়িয়েই শেষপর্যন্ত পাইপলাইন প্রশ্নে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করল পাকিস্তান। গ্যাস পাইপলাইন নিয়ে তেহরান-ইসলামাবাদ ঐকমত্য

অন্যদিকে নিজেদের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে বিশ্বের শক্তিধর দেশগুলির সঙ্গে আলোচনা শুরু করতে চায় তেহেরান। এমনটাই জানিয়েছে ইরানের বিদেশমন্ত্রক। তবে কোনও অবস্থাতেই যে আন্তর্জাতিক চাপের মুখে পরমাণু প্রকল্প স্থগিত রাখা হবে না বুধবার তেহেরানের একটি পরমাণু প্রকল্পে চুল্লিতে জ্বালানি রড ভরে কর্মকাণ্ডের সূচনা করতে গিয়ে দ্বর্থ্যহীন ভাষায় জানিয়ে দিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট আহমেদিনেজাদ। সেই সঙ্গে তিনি বলেন, শান্তিপূর্ণ ভাবে পরমাণু শক্তি ব্যবহারের উদ্দেশ্যে ইরানি বিজ্ঞানীরা কার্বন তন্তুতে তৈরি উন্নত মানের চতুর্থ প্রজন্মের সেন্ট্রিফিউজ তৈরি করতে সক্ষম হয়েছেন। এর ফলে দ্রুত ইউরেনিয়াম বিশুদ্ধিকরণের কাজ সম্পন্ন করা যাবে এবং কম বর্জ্য উত্‍পন্ন হবে।



First Published: Friday, February 17, 2012, 13:01


comments powered by Disqus