পাকিস্তানের সেনাপ্রধানকে জড়িয়ে ধরলে 'পাকিস্তান জিন্দাবাদ' স্লোগানই শুনতে হবে, সিধুকে তোপ অমিত শাহের

প্রসঙ্গত, রাজস্থানে বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে গিয়েছিলেন প্রাক্তন ক্রিকেটার নভজ্যোত সিং সিধু। পয়লা ডিসেম্বর আলওয়ারের একটি সভায় তিনি যখন বক্তৃতা করছেন, সেই সময় দর্শকদের মধ্যে কয়েকজন বলে ওঠেন 'পাকিস্তান জিন্দাবাদ'। এই ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই বিতর্ক তৈরি হয়। খবর প্রকাশ করে জি নিউজ। আর তার পরই এই প্রসঙ্গেই সিধুর বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন অমিত শাহ।

Updated: Dec 6, 2018, 06:47 PM IST
পাকিস্তানের সেনাপ্রধানকে জড়িয়ে ধরলে 'পাকিস্তান জিন্দাবাদ' স্লোগানই শুনতে হবে, সিধুকে তোপ অমিত শাহের

নিজস্ব প্রতিবেদন: 'পাকিস্তান জিন্দাবাদ' ইস্যুতে প্রবল চাপে কংগ্রেস নেতা নভজ্যোত সিং সিধু। পাকিস্তানের এই মন্ত্রীর বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন স্বয়ং বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। তাঁর সাফ কথা, ''পাকিস্তানের সেনাপ্রধানকে জড়িয়ে ধরলে তো আপনার ব়্যালিতে এমনই স্লোগান শোনা যাবে।''

প্রসঙ্গত, রাজস্থানে বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে গিয়েছিলেন প্রাক্তন ক্রিকেটার নভজ্যোত সিং সিধু। পয়লা ডিসেম্বর আলওয়ারের একটি সভায় তিনি যখন বক্তৃতা করছেন, সেই সময় দর্শকদের মধ্যে কয়েকজন বলে ওঠেন 'পাকিস্তান জিন্দাবাদ'। এই ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই বিতর্ক তৈরি হয়। খবর প্রকাশ করে জি নিউজ। আর তার পরই এই প্রসঙ্গেই সিধুর বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন অমিত শাহ।

শুক্রবার রাজস্থানে বিধানসভা নির্বাচন। বুধবার ছিল প্রচারের শেষদিন। সেদিনই সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় বিজেপির সভাপতি সিধুকে কটাক্ষ করেছিলেন। প্রশ্ন তুলেছিলেন, পাকিস্তানের সেনাপ্রধান জাভেদ বাজওয়াকে জড়িয়ে ধরার আগে কি তিনি রাহুল গান্ধীকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন? অমিত শাহর দাবি, সিধুর এই 'পাকিস্তান প্রেমের' উত্তর কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীকেই দিতে হবে।

কংগ্রেস অবশ্য দাবি করেছিল ভিডিওটি বিকৃত। কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা একটি ভিডিও শেয়ার করেন। সেখানে দেখানো হয় যে সভায় উপস্থিত দর্শকরা বলছেন 'সত্ শ্রী অকাল'। বিতর্কিত অংশ বাদ দিয়ে বেশ কিছু কংগ্রেস নেতা একটি ভিডিও ট্যুইট করেছিলেন। সিধু জি নিউজের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করার হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন।

জি নিউজের তরফে যোগাযোগ করা হয় স্থানীয় মানুষ ও সেখানকার বেশ কয়েকজন সাংবাদিকের সঙ্গে। সেখান থেকে জোগাড় করে আনা হয় ওই সমাবেশের সাতটি ভিডিও। সেখানে উপস্থিত সাংবাদিকরা ওই ভিডিওগুলি রেকর্ড করেছিলেন। স্থানীয় এক সাংবাদিক আবার ক্যামেরার সামনেই কংগ্রেসের মুখোশ খুলে দেন। তিনি দেখিয়ে দিন, সিধুর বক্তৃতার সময় ঠিক কোন জায়গায় উপস্থিত জনতার মধ্যে কয়েকজন 'পাকিস্তান জিন্দাবাদ' স্লোগান দেয়।

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close