অচলাবস্থা জারি, কাল পর্যন্ত মুলতুবি সংসদের দুই কক্ষ

অধিবেশন শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই তা মুলতুবি করে দিতে বাধ্য হলেন অধ্যক্ষ। আজ বেলা বারোটা পর্যন্ত মুলতুবি হয়ে যায় সংসদের দুই কক্ষের অধিবেশন। প্রত্যাশামতোই এফডিআই ইস্যুতে অধিবেশন শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই সোচ্চার হন বিরোধীরা। হট্টগোলের জেরে অধিবেশন মুলতুবি করে দিতে হয়। এফডিআই ইস্যুতে আলোচনা এবং ভোটাভুটির দাবিতে অনড় বিরোধীরা।

Updated: Nov 26, 2012, 11:49 AM IST

অধিবেশন শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই তা মুলতুবি করে দিতে বাধ্য হলেন অধ্যক্ষ। আজ বেলা বারোটা পর্যন্ত মুলতুবি হয়ে যায় সংসদের দুই কক্ষের অধিবেশন। প্রত্যাশামতোই এফডিআই ইস্যুতে অধিবেশন শুরুর সঙ্গে সঙ্গেই সোচ্চার হন বিরোধীরা। হট্টগোলের জেরে অধিবেশন মুলতুবি করে দিতে হয়। এফডিআই ইস্যুতে আলোচনা এবং ভোটাভুটির দাবিতে অনড় বিরোধীরা।
এদিকে, টুজি কাণ্ডে সিএজি রিপোর্ট নিয়ে সংসদে আলোচনার দাবি জানালো ডিএমকে। একশো তিরানব্বই ধারায় আলোচনার দাবি জানিয়ে নোটিস দিল তারা। আজ একথা জানিয়েছেন ডিএমকে সাংসদ টি আর বালু। ডিএমকে-র নোটিস নিয়ে অবশ্য মাথা ঘামাতে রাজি নয় কংগ্রেস। তবে এফডিআই নিয়ে তারা যে সরকারের পাশে নেই গতকালই তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন ডিএমকে প্রধান করুণানিধি।  
রান্নার গ্যাসের ভর্তুকিপ্রাপ্ত সিলিন্ডারের সংখ্যা বৃদ্ধি এবং সংসদে পৃথক ঘরের দাবিতে আজ ফের ধরনায় বসলেন তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদরা। গত বৃহস্পতিবারও এফডিআই ইস্যু এবং ঘরের দাবিতে ধরনায় বসেন তাঁরা। সেদিন সংসদে অনাস্থা প্রস্তাব আনে তৃণমূল। রান্নার গ্যাসের ভর্তুকি নিয়ন্ত্রণ, ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি এবং এফডিআই ইস্যুতে ইউপিএ থেকে বেরিয়ে এসেছে তৃণমূল কংগ্রেস। এরপর থেকে কেন্দ্রের ওপর চাপ বাড়াতে একাধিক আন্দোলনে সামিল হয়েছেন তাঁরা।