ঝাড়খণ্ডের মুখ্যসচিবের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর দফতরের

১৯৮৩-র ব্যাচের আইএএস আধিকারিক রাজবালা ভার্মা ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন।

Updated: Feb 8, 2018, 08:56 PM IST
ঝাড়খণ্ডের মুখ্যসচিবের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর দফতরের

নিজস্ব প্রতিবেদন : অবসরের ঠিক আগে ফের বিপাকে ঝাড়খণ্ডের মুখ্যসচিব রাজবালা ভার্মা। রাজবালার বিরুদ্ধে পালামৌ জেলায় কয়লাখনি বন্টন দুর্নীতি মামলায় অভিযুক্ত সরকারি আধিকারিককে আড়াল করার অভিযোগ রয়েছে। এবার তার বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দিল প্রধানমন্ত্রীর দফতর।

১৯৮৩-র ব্যাচের আইএএস আধিকারিক রাজবালা ভার্মা ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন। চাকরি জীবনের শুরুতে একটি ব্যাঙ্ককে তাঁর ছেলের সংস্থাকে আর্থিক সাহায্য করার জন্য বেআইনিভাবে চাপ দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে রাজবালার বিরুদ্ধে।

২০১৭ সালে ঝাড়খণ্ড বিকাশ মোর্চার নেতা দীলিপ মিশ্র তাঁর বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর দফতরে চিঠি লেখেন। চিঠিতে লেখা হয়, রাজবালা ভার্মা ও পুলিসকর্তা এপি সিং যৌথভাবে মিথ্যা রিপোর্ট তৈরি করে পালামৌয়ের প্রাক্তন জেলাশাসক পূজা সিঙ্ঘলের দুর্নীতি আড়াল করেছেন। পূজা সিঙ্ঘলের বিরুদ্ধে অভিযোগ, কয়লার ব্লক বন্টনে একাধিক দূর্নীতি করেছে তিনি। ২০১৭-র জুলাই ও সেপ্টেম্বর মাসে প্রধানমন্ত্রীর দফতরে দুটি চিঠি লেখেন দীলিপ মিশ্র। এরপরই ঝাড়খণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী রঘুবর দাসকে অবিলম্বে রাজবালা ভার্মা ও এপি সিংয়ের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর দফতর।

আরও পড়ুন- এশিয়ার ধনীতম গ্রামের তালিকায় এল অরুণাচল প্রদেশের বোমজা