স্বাভাবিক হচ্ছে বিদ্যুত্‍ পরিষেবা, সুর নরম কেন্দ্রের

Last Updated: Wednesday, August 1, 2012 - 10:41

নজিরবিহীন বিদ্যুত্‍ বিপর্যয়ের পর ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে পরিষেবা। দিল্লি সমেত উত্তর ভারতের ৮০ শতাংশ অংশে বিদ্যুত্‍ সংযোগ ফের স্থাপন করা গিয়েছে। উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বিদ্যুত্‍ পরিস্থিতি সম্পূর্ণ স্বাভাবিক বলে গ্রিডের তরফে দাবি করা হয়েছে। দেশের পূর্বাংশে সম্পূর্ণ স্বাভাবিক অবস্থা না ফিরলেও, বিপর্যয়ের পরিস্থিতি আর নেই বলেই গ্রিডের তরফে দাবি করা হয়েছে। অন্যদিকে গ্রিড বিপর্যয় নিয়ে প্রবল চাপানউতোরের মাঝেই এদিন গোটা বিষয়টি সম্পর্কে সুর নরম করেছেন নবনিযুক্ত কেন্দ্রীয় বিদ্যুত্‍মন্ত্রী এম বীরাপ্পা মইলি।
গতকাল দুপুরে নর্দার্ন, ইস্টার্ন এবং নর্থ-ইস্টার্ন পাওয়ার গ্রিড বিকল হওয়ায় দেশের অর্ধেকেরও বেশি অংশে বিদ্যুত্‍ বিপর্যয় ভয়াবহ আকার নেয়। ২২টি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে সরাসরি প্রভাব পড়ে। দেশ জুড়ে কয়েক`শো ট্রেন দাঁড়িয়ে পড়ে। বহু রাজ্যে জরুরি পরিষেবা, ট্যাফ্রিক ব্যবস্থায় প্রভাব পড়ে। সোমবারও নর্দার্ন গ্রিড বিকল হয়ে যাওয়ায় রাজধানী দিল্লি সমেত উত্তর ভারতের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে দীর্ঘক্ষণ বিদ্যুত্‍ ছিল না।
পঞ্জাব, হরিয়ানা, রাজস্থান, দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, হিমাচল প্রদেশ, জম্মু ও কাশ্মীর এবং চণ্ডীগড়ে বিদ্যুত্‍ সরবরাহ হয় নর্দার্ন গ্রিড থেকে। ইস্টার্ন গ্রিড থেকে বিদ্যুত্‍ সরবরাহ করা হয় পশ্চিমবঙ্গ, ছত্তিশগড়, বিহার, ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা এবং সিকিমে। নর্থ ইস্টার্ন গ্রিডের আওতায় রয়েছে অরুণাচল প্রদেশ, নাগাল্যান্ড, অসম, মেঘালয়, মণিপুর, মিজোরাম এবং ত্রিপুরা। গ্রিড-ত্র্যহস্পর্শে এই রাজ্যগুলি বেহাল হয়ে পড়ে।

গতকাল বিপর্যয়ের দায় রাজ্যগুলির ওপর চাপিয়ে বিদায়ী কেন্দ্রীয় বিদ্যুত্‍মন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্ডে বলেছিলেন, কয়েকটি রাজ্য কোটার অতিরিক্ত বিদ্যুত্‍ নেওয়ার কারণেই বিপত্তি। সংশ্লিষ্ট রাজ্যগুলির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ারও হুঁশিয়ারি দেন তিনি। শিন্ডের গলায় শাস্তির হুমকি শোনার পর পাল্টা তোপ দাগে পঞ্জাব, হরিয়ানাও। আর এই চাপান-উতোরের মধ্যেই গ্রিড বিপর্যয় নিয়ে কেন্দ্রকে ফের কড়াভাষায় আক্রমণ করে প্রধান বিরোধী দল বিজেপি। কিন্তু মঙ্গলবার রাতে বিদ্যুত্‍মন্ত্রকের দায়িত্ব পাওয়ার পরই কার্যত সুর নরম করেন বীরাপ্পা মইলি। দোষারোপের পথ থেকে সরে আলোচনাতেই সমাধান খোঁজার উপর জোর দেন সনিয়া গান্ধীর বিশ্বস্ত কর্নাটকের এই কংগ্রেস নেতা।
প্রসঙ্গত, গ্রিড-বিপর্যয়ের প্রেক্ষিতে ইতিমধ্যেই উত্তরপ্রদেশ, হরিয়ানা, পঞ্জাব, উত্তরাখণ্ড এবং জম্মু-কাশ্মীরের বিদ্যুত্‍ দফতরের আধিকারিকদের তলব করেছে কেন্দ্রীয় বিদ্যুত্‍ নিয়ন্ত্রক কমিশন। ১৪ অগাস্ট দিল্লিতে সংশ্লিষ্ট অফিসারদের হাজির হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।



First Published: Wednesday, August 1, 2012 - 10:53


comments powered by Disqus