প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা ২৩ ডিসেম্বরই

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা ২৩ ডিসেম্বরই

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা ২৩ ডিসেম্বরইনির্ধারিত সূচি মেনেই হবে প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা। আজ পরীক্ষার ওপর আগের স্থগিতাদেশ খারিজ করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। পরীক্ষায় দুটি মেধাতালিকা তৈরির পাশাপাশি নিয়োগের ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের অগ্রাধিকারের নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

আদালতের নির্দেশে ফের ধাক্কা খেল প্রশাসনিক সিদ্ধান্ত। সরকারি বিজ্ঞাপনকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে দায়ের হওয়া মামলায় বুধবার প্রাথমিকে নিয়োগের ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের অগ্রাধিকারের নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। প্রাথমিকে ৩৪ হাজার পদে নিয়োগের জন্য গত ১৯ শে অক্টোবর বিজ্ঞাপন দেয় রাজ্য সরকার। ওই বিজ্ঞাপনকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেন কয়েকজন প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থী। মামলাকারীদের বক্তব্য ছিল, এনসিটিইর নিয়ম মেনে প্রশিক্ষিতদের যে সুযোগ পাওয়ার কথা, বিজ্ঞাপনে তা উল্লেখ করা হয়নি। আবেদনের ভিত্তিতে গত তেরোই ডিসেম্বর নিয়োগের পরীক্ষায় স্থগিতাদেশ জারি করে কলকাতা হাইকোর্ট। নির্দেশে বলা হয়, বিজ্ঞাপনের পদ্ধতি অসাংবিধানিক হওয়ায় তার ভিত্তিতে কোনও পরীক্ষা নেওয়া যাবে না। প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের অগ্রাধিকার দেওয়ার বিষয়ে রাজ্য সরকারকে হলফনামাও জমা দিতে বলে আদালত। বুধবার আগের স্থগিতাদেশ খারিজ করে দেয় আদালত।

 
তবে আদালতের নির্দেশে তাঁদেরই জয় বলে মনে করছে সরকারপক্ষ। যদিও এদিন আদাত চত্বরে তুমুল বিক্ষোভ দেখান প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত প্রার্থীরা। তাঁদের দাবি এনসিটিই-র নির্দেশ অনুসারে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের কোনও পরীক্ষা দেওয়ার কথাই নয়।
 





First Published: Wednesday, December 19, 2012, 20:24


comments powered by Disqus