ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি সিদ্ধান্ত সঠিক: প্রধানমন্ত্রী

Last Updated: Saturday, September 15, 2012 - 13:27

ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে একদিকে দেশব্যাপী সরকার বিরোধী সুর চড়া হচ্ছে। এমনকি, বিরোধীদের পাশাপাশি শরিক দলগুলিও কেন্দ্রের এই জনবিরোধী সিদ্ধান্তকে মেনে নিতে পারছে না। এই পরিস্থিতিতে শনিবার মূল্যবৃদ্ধির আত্মপক্ষ সমর্থনে মুখ খুললেন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। এই মূল্যবৃদ্ধিকে আর্থিক সংষ্কারের পক্ষে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে ব্যাখ্যা করেছেন প্রধানমন্ত্রী।
সংস্কারের ব্যাপারে কেন্দ্র যে অনড়, দেশব্যাপী আন্দোলনের মাঝে আজ আরও একবার তা স্পষ্ট করে দিলেন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। যোজনা কমিশনের বৈঠকে আজ প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত সঠিক। সঠিক খুচরো ব্যবসায়ে বিদেশি বিনিয়োগের সিদ্ধান্তও। 
ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি, এলপিজি সিলিন্ডারের ভর্তুকির কোটা বেঁধে দেওয়া এবং খুচরো ব্যবসায়ে বিদেশি বিনিয়োগ। কেন্দ্রের একের পর এক সিদ্ধান্তে দেশব্যাপী আন্দোলনের ঢেউ উঠেছে। বিরোধীরা তো বটেই প্রতিবাদে সরব ইউপিএ শরিক তৃণমূল কংগ্রেসও। সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের জন্য কেন্দ্রকে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু সরকার যে তাতে দমেনি, তা একরকম পরিষ্কার। ডিজেলের দাম বৃদ্ধি এবং এফডিআইয়ের বিরোধিতায় দেশব্যাপী বিক্ষোভের মাঝেই শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী জানিয়ে দেন ডুবতে হলে লড়াই করেই ডুবব। সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের প্রশ্ন নেই। আর শনিবার যোজনা কমিশনের বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেন ডিজেলের দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত সঠিক।
খুচরো ব্যবসায়ে বিদেশি বিনিয়োগের পক্ষেও সওয়াল করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, অর্থনৈতিক বিকাশের গতিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে বিনিয়োগের পরিবেশ তৈরি করা জরুরি। দ্বাদশ পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনার রূপরেখা তৈরির বৈঠক ছিল শনিবার। আর্থিক বিকাশের হারের লক্ষ্যমাত্রা আগের তুলনায় কমিয়ে ৮.২ শতাংশ স্থির হয়েছে বলে প্রধানমন্ত্রী জানান। এবং লক্ষ্যমাত্রা পূরণে বেসরকারি বিনিয়োগ একান্ত জরুরি বলেও স্পষ্ট করেন তিনি। একাদশ পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় আর্থিক বিকাশের হার ৭.৫ শতাংশে পৌঁছেছে, কৃষির বিকাশ বেড়ে হয়েছে ৩.৩ শতাংশ। দেশে গরিবের সংখ্যাও কমেছে বলেই প্রধানমন্ত্রী জানান।



First Published: Saturday, September 15, 2012 - 13:27
comments powered by Disqus