হাসপাতাল থেকে পালালো বিচারাধীন বন্দি

হাসপাতাল থেকে পালালো বিচারাধীন বন্দি

হাসপাতাল থেকে পালালো বিচারাধীন বন্দিহাওড়া জেলা হাসপাতাল থেকে পালিয়ে গেল এক বিচারাধীন বন্দি। গুড়াপের বাসিন্দা ওই বন্দির নাম জাকির হোসেন। আদালতের নির্দেশে গত ২৪ অগাস্ট তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই বন্দির ডান পায়ে প্লাস্টার ছিল বলে জানিয়েছে পুলিস। হাসপাতালেও কড়া পুলিসি প্রহরায় ওই বন্দিকে রাখা হয়েছিল। রবিবার রাত ৯টা ২০ নাগাদ মেল মেডিক্যাল ওয়ার্ড থেকে লাফ মেরে পালিয়ে যায় ওই বন্দি। ঘটনায় পুলিসের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

বালি থানার পুলিসের হাতে গ্রেফতার হওয়ার পর, আদালতের নির্দেশে গত ২৪ অগাস্ট হাওড়া জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয় বিচারাধীন বন্দি জাকির হোসেনকে। সর্বক্ষণের পুলিসি প্রহরায় মেল মেডিসিন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছিল হুগলির গুরাপের বাসিন্দা ওই বন্দিকে।

এই ঘটনায় প্রশ্ন উঠেছে, হাসপাতালের পাহারা এবং পুলিসি পাহারা থাকা সত্বেও কীভাবে পালিয়ে গেল ওই বন্দি? বন্দি পালানোর ঘটনায় বারবার প্রশ্ন উঠছে পুলিসের ভূমিকা নিয়ে। হাওড়া সিটি পুলিস ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।
 








First Published: Monday, September 03, 2012, 12:30


comments powered by Disqus