লক্ষ্য ২০১৪: কংগ্রেসের মুখ রাহুল

Last Updated: Tuesday, December 11, 2012 - 10:13

আগামী লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেস জিতলে প্রধানমন্ত্রিত্বের দৌড়ে এগিয়ে রাহুল গান্ধীই। দলের তরফে জানানো হয়েছে, সোনিয়া পুত্রের নেতৃত্বেই ২০১৪ ভোট লড়বে কংগ্রেস। এমনকি, কংগ্রেস সভাপতির দায়িত্বও রাহুল গান্ধী পেতে পারেন বলে ইঙ্গিত মিলেছে।   
২০১৪-এ কংগ্রেস ফের ক্ষমতায় এলে রাহুল গান্ধী কি প্রধানমন্ত্রী হবেন? জাতীয় রাজনীতিতে বেশ কিছুদিন ধরেই ঘুরে ফিরে আসছে এই প্রশ্ন। কংগ্রেসের নেতারাও প্রকাশ্যে সোনিয়া পুত্রের পক্ষে সওয়াল করছেন। রাজনৈতিক মহলের ধারণা, রাহুল গান্ধীকে প্রধানমন্ত্রী পদে জোর করে বসিয়ে দেওয়া হচ্ছে না। দলীয় নেতা-কর্মীদের দাবিতেই তাঁকে প্রধানমন্ত্রী করা হচ্ছে - এমনটাই দেখাতে চান সোনিয়া গান্ধী। আর দলনেত্রীর মনোভাবের সঙ্গে সঙ্গতি রেখেই রাহুলের পক্ষে মুখ খুলছেন কংগ্রেসের শীর্ষ নেতারা। এমনিতে, কংগ্রেসে রাহুল গান্ধী অঘোষিত নাম্বার টু। বিহার, উত্তরপ্রদেশ নির্বাচনে ভরাডুবির দায় তাঁর ওপর অনেকটাই বর্তালেও দলে রাহুল গান্ধীর গুরুত্ব ক্রমশ বেড়েছে। রামলীলা ময়দানে প্রকাশ্য জনসভাই হোক বা সুরজকুণ্ডের অধিবেশন, সংবাদ বৈঠক - গত কয়েকমাসে রাহুল গান্ধীকে কংগ্রসের বিভিন্ন কর্মসূচিতেই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় দেখা গেছে। 
কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার সর্বশেষ রদবদলেও গুরুত্ব পেয়েছে রাহুল ব্রিগেড। এই অবস্থায় তাঁর  প্রধানমন্ত্রী হওয়া নিয়ে জল্পনা উস্কে দিলেন কংগ্রেস মুখপাত্র পিসি চাকো। সোমবার, তিনি জানান, রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বেই ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনে লড়াই করবে কংগ্রেস। খুব তাড়াতাড়িই সোনিয়া পুত্র দলে আরও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি। সোনিয়া গান্ধীর পরিবর্তে কংগ্রেস সভাপতির দায়িত্বও রাহুল গান্ধী নিতে পারেন বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন পিসি চাকো।
২০১৪-র লোকসভা নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে ইতিমধ্যেই রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বে কমিটি গঠন করেছে কংগ্রেস। জানুয়ারি মাসে জয়পুরে বসছে দলের চিন্তন বৈঠক। সেই বৈঠকে জোট রাজনীতির বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা হবে। সেখানে রাহুল গান্ধী কী ভূমিকা নেন, এখন সেদিকে নজর রাজনৈতিক মহলের।



First Published: Tuesday, December 11, 2012 - 10:17


comments powered by Disqus