বাড়ছে না ভাড়া, জনমুখি রেলবাজেটের পথেই হাঁটছেন রেলমন্ত্রী

Last Updated: Monday, February 25, 2013 - 16:54

আগামিকাল সংসদে পেশ হতে চলেছে রেল বাজেট ২০১৩। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনকে মাথায় রেখে রেলবাজেটকে জনমুখি করে তুলতে কোনও কসুর রাখতে চায় না মনমোহন সিংয়ের সরকার। বাজেট পেশের আর বাকি নেই ২৪ ঘণ্টাও। ইতিমধ্যেই বেশকিছু ইঙ্গিত মিলতে শুরু করেছে মন্ত্রক সূত্রে। জানাগিয়েছে যাত্রীভাড়ায় সরাসরি কোনও বৃদ্ধি হওয়ার সম্ভাবনা নেই। রেলমন্ত্রী পবন কুমার বনসল সম্প্রতি জানিয়েছিলেন ডিজেলের মুল্যবৃদ্ধিতে রেলের ভাড়া বাড়ায় রেলের আয় বেড়েছে ৩ হাজার ৩০০ কোটি টাকা।
রেলে বাজেটে প্রতিবছর নজর থাকে যাত্রী সুরক্ষা ও সাচ্ছন্দে। রেলের খাবার, খাবারের মান, রেলের শৌচালয় ব্যবস্থা বিশেষ করে মহিলাদের নিরাপত্তার বিষয়ে পবন বনসল কতটা নজর দেন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে। নতুন প্রকল্পের মধ্যে আরও ৮০০টি স্টেশনে সুলভ শৌচালয় তৈরি করার লক্ষ্যমাত্রা রেখেছে রেল।
টিকিট বুকিং ব্যবস্থায় দালাল রাজ নিয়ন্ত্রণ করতে আঁধার কার্ডকে যুক্ত করার পরিকল্পনা নিচ্ছে রেল। এ প্ররসঙ্গে রেলমন্ত্রী গত সপ্তাহেই একথা জানিয়েছিলেন। সংরক্ষণ কেন্দ্রে দালাল দৌরাত্মে সাধারণ যাত্রীদের টিকিত না পাওয়ার সমস্যা অনেক দিনের। বনসল বলেন, "সাধারণ যাত্রীদের টিকিট পাওয়ার সুবিধা করে দিতে, পর্যটন সংস্থাগুলির একসাথে টিকিট সংরক্ষণের পক্রিয়াকে নিয়ন্ত্রণ করা প্রয়োজন।" এ বিষয়ে আধিকারিক পর্যায়ে আলোচনাও হয়েছে বলে দাবি করেন রেলমন্ত্রী। টিকিটে বার কোর্ডের ব্যবহার করে আঁধার কার্ডের উল্লেখ করার প্রযুক্তি আনার পরিকল্পনা করছে রেল।
তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রেলমন্ত্রী থাকাকালীন বেহিসেবি প্রকল্প ঘোষণা করেছেন বলে বরাবর অভিযোগ তুলেছে বিরোধীরা। এবার মমতার ঘোষিত প্রকল্পগুলির অধিকাংশেরই কোনও বাস্তব ভিত্তি নেই বলে কটাক্ষ করলেন রেল প্রতিমন্ত্রী অধীর চৌধুরী। রেল বাজেটের ঠিক আগেরদিন এমনটাই মন্তব্য করেছেন রেল প্রতিমন্ত্রী অধীররঞ্জন চৌধুরী। তিনি আরও বলেন, "মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘোষিত রেল প্রকল্পগুলি নিয়ে শীঘ্রই শ্বেতপত্র প্রকাশ করা হবে।"



First Published: Monday, February 25, 2013 - 16:56


comments powered by Disqus