রাজের ফতোয়ার মুখে এবার হিন্দি খবরের চ্যানেল

Last Updated: Sunday, September 2, 2012 - 17:54

মহারাষ্ট্র রাজনীতির বিতর্কিত চরিত্র রাজ ঠাকরের কোপের মুখে এবার পড়তে চলেছে হিন্দি খবরের চ্যানেল। হিন্দি খবরের চ্যানেলগুলিকে একহাত নিয়ে এমএনএস প্রধান রাজ বলেছেন, " ওরা ইস্যু না বুঝেই খবরকে নিয়ে যা খুশি করে। এসব ওরা না থামালে আমরাই ওদের খেলা বন্ধ করে দেব।" এরপর রাজ ঠাকরে ঠাট্টার সুরে বলেন, "এই যে আমি এই কথাটা বললাম জানি ওরা সেটাও ব্রেকিং নিউজ হিসাবে দেখাবে।"এরপর খবরের চ্যানেলের সংবাদপাঠকদের নকল করে অদ্ভূতরকম অঙ্গভঙ্গি করেন রাজ। আদালতে তাঁর বিরুদ্ধে হওয়া মামলা নিয়ে রাজের সংক্ষিপ্ত জবাব, " আমি আইন জানি।"
বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে শনিবার বিহারের একটি আদালতে মহারাষ্ট্র নবনির্মান সেনা সুপ্রিমো রাজ ঠাকরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হল। মামলাটি করেছেন বিহারের মুজজফরপুরের এক আইনজীবী।
গত বৃহস্পতিবার একটি জনসভায় রাজ ঠাকরে মহারাষ্ট্রবাসী বিহারিদের `অনুপ্রবেশকারী` বলে মন্তব্য করেন। তাঁর মন্তব্যের জবাবে কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক দ্বিগবিজয় সিং এমএনএস প্রধান বলেন, ` ইতিহাস ঘাঁটলে দেখা যাবে একমাত্র মৎস্যজীবীরা ছাড়া মহারাষ্ট্রে বসবাসকারী সিংহ ভাগ মানুষই আসলে বহিরাগত। এমনকি ঠাকরে পরিবারের আদিভূমি বিহার। সেখান থেকে মধ্যপ্রদেশ হয়ে মহারাষ্ট্রে আসেন তাঁরা"।শুধুমাত্র বিহারীদের অনুপ্রবেশকারী` বলেই থেমে থাকেননি রাজ। রীতিমত হুমকির সুরে তিনি বলেছেন বিহার প্রশাসন যদি আজাদ ময়দানে বিহারিদের বিক্ষোভ চলাকালীন কর্তব্যরত পুলিসকর্মীদের বিরুদ্ধে কোন শাস্তিমূলক ব্যাবস্থা নেয় তবে মহারাষ্ট্র থেকে বিহারিদের সম্পূর্ণ বিতাড়িত করতেও পিছপা হবেন না তিনি।
বেশ কিছু দিন ধরেই মহারাষ্ট্রের হিন্দিভাষীদের উপর জেহাদ ঘোষণা করেছে রাজের নবনির্মান সেনা। গত ১১ই অগাস্ট মুম্বই এর আজাদ ময়দানে শহীদ বেদিতে বিক্ষোভ চলাকালীন `ভাঙচুরের` অপরাধে এক বিহারি কিশোরকে গ্রেফতার করে মুম্বই পুলিস। এই ঘটনার তীব্র বিরোধিতা করে বিহার প্রশাসনের মুখ্য সচিব নবীন কুমার মুম্বই পুলিশ কমিশনারকে চিঠি লেখেন। আর তাতেই ক্ষেপে ওঠেন এমএনএস প্রধান। বৃহস্পতিবার ঠাকরের মন্তব্যে তারই প্রতিফলন ঘটেছে বলে মনে করা হচ্ছে।



First Published: Sunday, September 2, 2012 - 19:47


comments powered by Disqus