`লক্ষ্মণরেখা` পেরোলে তার মূল্য চোকাতে হবে মহিলাদেরই: বিজেপি নেতা

আবার বিতর্কের শীর্ষে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের কুলপতি মোহন ভাগবত। ভারতে নয়, ধর্ষণের ঘটনা ঘটে 'ইন্ডিয়া'তে। শিলচরে আরএসএস-এর এক কর্মিসভায় বর্ষীয়ান এই নেতার দাবি শহরাঞ্চলের 'পাশ্চাত্য-দর্শন'ই মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধের অন্যতম প্রধান কারণ। এখানেই শেষ নয়। দেশের প্রধান বিরোধীদলের অস্বস্তিতে ঘৃতাহুতি দিয়ে মধ্যপ্রদেশের বিজেপি নেতা কৈলাশ বিজয়ভার্গীয় বলেন, 'লক্ষ্মণরেখা' পেরোলে তার মূল্য চোকাতে হবে মহিলাদেরই। বিজেপির পক্ষ থেকে অবশ্য ক্ষমা চাইতে বলা হয়েছে মধ্যপ্রদেশের এই নেতাকে।

Updated: Jan 4, 2013, 12:44 PM IST

আবার বিতর্কের শীর্ষে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের কুলপতি মোহন ভাগবত। ভারতে নয়, ধর্ষণের ঘটনা ঘটে 'ইন্ডিয়া'তে। শিলচরে আরএসএস-এর এক কর্মিসভায় বর্ষীয়ান এই নেতার দাবি শহরাঞ্চলের 'পাশ্চাত্য-দর্শন'ই মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধের অন্যতম প্রধান কারণ। এখানেই শেষ নয়। দেশের প্রধান বিরোধীদলের অস্বস্তিতে ঘৃতাহুতি দিয়ে মধ্যপ্রদেশের বিজেপি নেতা কৈলাশ বিজয়ভার্গীয় বলেন, 'লক্ষ্মণরেখা' পেরোলে তার মূল্য চোকাতে হবে মহিলাদেরই। সারা দেশ যখন নারী নিরাপত্তার দাবিতে সোচ্চার, তখন স্বভাবতই পরপর এই দুই মন্তব্যে তীব্র বিতর্কের ঝড় উঠেছে দেশ জুড়ে। বিজেপির পক্ষ থেকে অবশ্য ক্ষমা চাইতে বলা হয়েছে মধ্যপ্রদেশের এই নেতাকে।
মধ্যপ্রদেশের শিল্প ও কর্মসংস্থান মন্ত্রী বিজয়ভার্গীয় রামায়ন উদ্ধৃত করে বলেন, "একটাই শব্দ, মর্যাদা। মর্যাদা পেরোলেই সীতা হরণ হয়। প্রত্যেক ব্যক্তির লক্ষ্মণরেখা টানা আছে। লক্ষ্মণরেখার ওপারে রাবণ রয়েছে। রেখা পেরোলে সীতা হৃত হবেনই।" স্বভাবতই এই মন্তব্যে একদিকে যেমন বতর্কের ঝড় উঠেছে, অন্যদিকে চরম অস্বস্তিতে পড়েছে বিজেপি। অস্বস্তি বাড়িয়েছে মোহন ভাগবতের মন্তব্যও।
সারা দেশ যখন লিঙ্গ বৈষম্যের বিরুদ্ধে সরব, প্রাচীনপন্থী সংস্কারাচ্ছন্ন মানসিকতা পরিবর্তনের পক্ষে সওয়াল করছে আজকের যুবসমাজ, তখন রাজনৈতিক নেতৃত্বের কাছ থেকে আরেকটু বেশি দায়িত্বশীল মন্তব্য আসা উচিত বলেই মনে করছে সমাজের বিভিন্ন মহল। ইতিহাসবিদ ইরফান হাবিব এই প্রসঙ্গে টুইট করেন, "ভারত এবং ইন্ডিয়া নিয়ে ভাগবতের মন্তব্য স্পষ্টতই হাস্যকর এবং বাস্তবক্ষেত্রে অত্যন্ত দুর্বল। তবে আরএসএস-এর দর্শনেরই পুনরাবৃত্তি।"