ধর্ষণের সাজা বাড়াতে আইন সংশোধনের আর্জি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

দিল্লির গণধর্ষণ কাণ্ডের ন্যায়বিচার চেয়ে দেশ জুড়ে চলা বিক্ষোভের মধ্যেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্ডে ঘটনার বিচারবিভাগীয় কমিশন গঠন করে তদন্তের আশ্বাস দিলেন। আজ সাংবাদিকদের সামনে এই ঘটনার মতো বিরল থেকে বিরলতম যৌন নিগ্রহের ক্ষেত্রে অভিযুক্ত অপরাধীদের শাস্তি কঠোরতর করার আর্জি জানাবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি। দিল্লি সহ সারা দেশেই মহিলাদের নিরাপত্তা নিয়ে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণেরও আশ্বাস দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। যাঁরা প্রতিবাদে পথে নেমেছেন তাঁদের ন্যায্য দাবির প্রতি সহমর্মিতা জানিয়ে তিনি বলেন এই পরিস্থিতিতে স্থৈর্যের পরিচয় দেওয়ার আবেদন করেন।

Updated: Dec 22, 2012, 10:44 PM IST

দিল্লির গণধর্ষণ কাণ্ডের ন্যায়বিচার চেয়ে দেশ জুড়ে চলা বিক্ষোভের মধ্যেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্ডে ঘটনার বিচারবিভাগীয় কমিশন গঠন করে তদন্তের আশ্বাস দিলেন। আজ সাংবাদিকদের সামনে এই ঘটনার মতো বিরল থেকে বিরলতম যৌন নিগ্রহের ক্ষেত্রে অভিযুক্ত অপরাধীদের শাস্তি কঠোরতর করার আর্জি জানাবেন বলেও জানিয়েছেন তিনি। দিল্লি সহ সারা দেশেই মহিলাদের নিরাপত্তা নিয়ে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণেরও আশ্বাস দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। যাঁরা প্রতিবাদে পথে নেমেছেন তাঁদের ন্যায্য দাবির প্রতি সহমর্মিতা জানিয়ে তিনি বলেন এই পরিস্থিতিতে স্থৈর্যের পরিচয় দেওয়ার আবেদন করেন। সারা দেশের পাশাপাশি তাঁর মন্ত্রক সহ কেন্দ্রীয় সরকারও রবিবার রাতের ঘটনাকে গভীর সংবেদনশীলতার সঙ্গে বিচার করছে বলেও জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এক নজরে দেখে নেব তাঁর বক্তব্যের সারাংশ

দিল্লির গণধর্ষণ নিয়ে বিচারবিভাগীয় তদন্ত করা হবে।
ধৃতদের বিরুদ্ধে যথেষ্ট প্রমাণ সংগ্রহ করেছে পুলিস। খুব তাড়াতাড়ি চার্জশিট তৈরি করা হবে।
সরকার আদালতের আকাছে মামলাটি দ্রুত নিষ্পত্তি করার জন্য ফার্স্ট ট্র্যাক কোর্ট তৈরির আবেদন করেছে।
বিরল থেকে বিরলতম (যেমন দিল্লির ঘটনা) যৌন হেনস্থার ঘটনায় দোষিদের আরও কঠিন শাস্তির আবেদন করবে সরকার।
নিগৃহীতার চিকিৎসার ক্ষেত্রের সমস্তরকম সাহাজ্যের আশ্বাস দিয়েছেন মন্ত্রী।
রাতে যাত্রী পরিষেবা বাড়ানো হবে।
বাসের গতিবিধিতে নজরদারি বাড়াতে জিপিএস বসানো হবে।
বাসে চালক সহ সব কর্মীদের পরিচয়পত্র বাধ্যতামূলক করা হল।
সারা শহরেই পুলিসি নিরাপত্তা জোরদার করা হবে। রাতে বিশেষ করে বিনোদন কেন্দ্র বা কর্মক্ষেত্র অঞ্চলে পুলিসের সংখ্যা বাড়ানো হবে।
রাজপথ থেকে বিক্ষোভ তুলে নেওয়ার আর্জি জানান।
আজকের বিক্ষোভ থামাতে পুলিসের ভূমিকা খতিয়ে দেখতে তদন্ত হবে।
তবে ধর্ষণে অভিযুক্তর কঠোর শাস্তি প্রণয়নের জন্য সংসদে বিশেষ অধিবেশনের প্রয়োজন নেই।

রবিবার রাতের ঘটনার তদন্তে যে সব পুলিসদের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ উঠবে তাঁদের বিরুদ্ধে বত্যবস্থা নেওয়া হবে। উচ্চপদস্থদেরও রেয়াত করা হবে না।
ইতিমধ্যেই ৫ জন পুলিস অফিসারকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।
দিল্লির নিরাপত্তা নিয়ে কঠোর ব্যবস্থার নেওয়ার নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী। আজ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে গণধর্ষণের ঘটনা এবং পুলিসি তদন্তের অগ্রগতি সম্পর্কে বিস্তারিত রিপোর্ট দেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুশীল কুমার শিন্ডে। এরপরেই নিরাপত্তা নিয়ে রাজধানীর নিরাপত্তা নিয়ে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী।
ইতিমধ্যেই বিক্ষোভকারীদের পাঁচজন প্রতিনিধির সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন শিন্ডে। বিক্ষোভকারীদের নিয়ন্ত্রণের জন্য ঘটনাস্থলে নামানো হয়েছে র‌্যাফ। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, তিনি ঘটনাটি নিজের পর্যবেক্ষণাধীন রাখছেন। এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি যেন না হয় সে বিষয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে সচেষ্ট হতে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।