শিবপুরে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় সরকারি হস্তক্ষেপের অভিযোগ

শিবপুরে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় সরকারি হস্তক্ষেপের অভিযোগ

শিবপুরে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় সরকারি হস্তক্ষেপের অভিযোগএবার স্বশাসিত বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়োগ প্রক্রিয়ায় সরাসরি হস্তক্ষেপের অভিযোগ উঠল রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে। সম্প্রতি শিবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় বেনিয়মের অভিযোগে রাজ্যসরকারের দ্বারস্থ হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সংগঠন। অভিযোগের ভিত্তিতে হঠাত্ই নিয়োগ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় সরকার। তবে প্রশ্ন, একতরফা অভিযোগের ভিত্তিতে  স্বশাসিত বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ রাখার নির্দেশ দিতে পারে রাজ্য সরকার?

শিবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে আটটি আধিকারিক পদ এবং প্রায় ৪৫টি অধ্যাপক পদে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল। বাছাই করা প্রার্থীদের ইন্টারভিউও চলছিল। কিন্তু সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অস্বচ্ছতার অভিযোগ তোলে বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সংগঠন। এই মর্মে সরকারকে অভিযোগও জানায় তারা। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে বৃহ্সপতিবার হটাত্‍ই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় রাজ্য সরকার।

কর্তৃপক্ষের দাবি, নির্দিষ্ট নিয়ম মেনেই আধিকারিক এবং অধ্যাপকদের নিয়োগ করা হচ্ছিল। ফলে প্রশ্ন উঠছে একতরফা অভিযোগের ভিত্তিতে, তা যাচাই না করে, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কোনও আলোচনা ছাড়াই কীভাবে নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় রাজ্য। সরকারের ভুমিকাও এর জেরে প্রশ্নের মুখে। সংশ্লিষ্ট মহলের একাংশের ধারণা, এভাবে নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধের নির্দেশ দিয়ে সরকার আসলে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাধিকারে হস্তক্ষেপ করছে। সেক্ষেত্রে নিয়োগের ওপরেও সরকারের প্রভাব বিস্তারের আশঙ্কাও উড়িয়ে দিচ্ছেন না তাঁরা। সবমিলিয়ে রাজ্য সরকারের নির্দেশে এখন বিশবাঁও জলে শিবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ প্রক্রিয়া। সরকারি নির্দেশে নিয়োগ প্রক্রিয়া হঠাত্ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ঘোর অনিশ্চিয়তার মধ্যে পড়েছেন চাকরিপ্রার্থীরাও।
 

First Published: Saturday, February 23, 2013, 09:58


comments powered by Disqus