পৃথক তেলেঙ্গানার দাবিতে সিদ্ধান্ত পিছোল

Last Updated: Sunday, January 27, 2013 - 20:41

পৃথক তেলেঙ্গানা রাজ্যের দাবি নিয়ে সিদ্ধান্ত ফের পিছোল। বিষয়টি নিয়ে আরও সময় এবং আলোচনা করা প্রয়োজন বলে জানালেন সুশীলকুমার শিন্ডে। গত ২৮ ডিসেম্বরই একমাসের মধ্যে তেলেঙ্গানা প্রশ্নে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।
সেই সময়সীমা পেরোনর আগেই আজ ফের এই ঘোষণা করেন সুশীলকুমার শিন্ডে। দাবি না মিটলে ফের আন্দোলন তীব্রতর করার হুমকি আগেই দিয়েছিল পৃথক তেলেঙ্গানার সমর্থকেরা। সকালে হায়দরাবাদে প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে গ্রেফতার হন টিআরএস নেতা কেটি রমা রাও। রবিবারও তেলেঙ্গানা জয়েন্ট অ্যাকশন কমিটির সমর্থকদের আন্দোলনে জেরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে ওসমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর। তেলেঙ্গানার দাবিতে ওসমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের মিছিলের ওপর কাঁদানে গ্যাস ছোঁড়ে পুলিস। নিমেষের মধ্যে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর। পুলিসকে লক্ষ্য করে ইট ছোঁড়ে আন্দোলনকারীরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিস ও আধা সামরিক বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিসের লাঠিচার্জে বেশকিছু ছাত্র আহত হয়েছেন। ছাত্রদের প্রতিহত করতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সবকটি প্রবেশদ্বার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।
আজ রাজ্যপাল ইএসএল নরসিমার পদত্যাগ ও পৃথক তেলেঙ্গানা রাজ্যের দাবিতে রাজভবন অভিযানের আয়োজন করেন ওসমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা। পুলিস তাতে বাধা দেয় বলে অভিযোগ। রাজভবনের আগেই ছাত্রদের `বাইক র‌্যালি` থামিয়ে দেয় পুলিস। প্রতিবাদরত ছাত্র নেতাদের সঙ্গে পুলিসের বচসাও বাঁধে।
অন্যদিকে খইরাতাবাদে মোড়ে জড়ো হন একদল ছাত্র। রাজভবনে যাওয়ার পথে তাঁদেরকেও গ্রেফতার করে পুলিস। প্রসঙ্গত, গত কয়েক বছর ধরে তেলেঙ্গানা ইস্যুতে বেশকিছু বড় আন্দোলনের সাক্ষী থেকেছে ওসমানিয়া বিশ্ববিদ্যালয়।



First Published: Sunday, January 27, 2013 - 20:41


comments powered by Disqus