অনুন্নয়নের প্রশ্নে মোদীকে বিঁধলেন সোনিয়া

Last Updated: Friday, December 7, 2012 - 21:15

মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে রাজ্যের সামগ্রিক উন্নয়ন নিয়ে সরাসরি আক্রমণ করলেন কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী। মোদীগড়ে কৃষক ও গরিব উন্নয়নে লক্ষ্যই দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ তুলেছেন সোনিয়া। গুজরাত নির্বাচনের প্রাক্বালে শুক্রবার দক্ষিণ গুজরাতের একটি জনসভায় বক্তব্য রাখেন কংগ্রেস সভানেত্রী। কেন্দ্রীয় প্রকল্পের সাহায্যের টাকাও নয়ছয় করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন তিনি।
এদিন আগাগোড়াই মোদীর বিরুদ্ধে ক্ষুরধার ছিলেন সনিয়া। তিনি বলেন, "ইউপিএ সরকার অন্যান্য রাজ্যের সঙ্গে গুজরাতকেও হাজার কোটি টাকার অর্থ সাহায্য করেছে। কিন্তু গুজরাতে সেই টাকা কীখাতে খরচ করা হল, তা কেউ জানে না।" রাজ্য সরকারের উদ্দেশে তিনি আরও বলেন, "তাঁরা গরিবদের বিষয়ে ভাবিত নন।" গুজরাত সরকার নিজেদের আখের গোছাতেই ব্যস্ত বলে অভিযোগ তুলেছেন নেত্রী।
শুক্রবার সোনিয়ার সভামঞ্চে জমায়েত হয়েছিল ভালই। তেরো ডিসেম্বর এই কেন্দ্র থেকেই মোদীর ভাগ্যপরীক্ষা শুরু হবে। সেই নিরিখে সনিয়ার আজকের জনসমাবেশ যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ। প্রসঙ্গত, ২০০৭ সালে এখান থেকেই মোদীকে `মত কা সদাগর` বলে বিতর্ক উস্কেছিলেন সোনিয়া। গুজরাতের উপজাতিদের কথা মাথায় রেখে, সোনিয়া বলেন, "সমালোচকরা আমাদের সম্পর্ককে দুর্বল করার চেষ্টা চালিয়েও ব্যর্থ হয়েছেন।" সেইসঙ্গে, যে কোনও পরিস্থিতিতে কংগ্রেসে পাশে থাকার জন্য তাঁদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন সোনিয়া।
ইউপিএ প্রধান আরও অভিযোগ করেন, গুজরাত সরকারের রাজনীতির জন্যই কেন্দ্রের কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পগুলি বাধা পাচ্ছে। কংগ্রেস নেতা তথা রাজ্যের প্রাক্তন উপমুখ্যমন্ত্রী নরহরি আমীন দলত্যাগ করে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার ঠিক পরের দিনই সনিয়া গান্ধী কংগ্রেসকেই গুজরাতের ভবিষ্যৎ রূপকার বলে বর্ণনা করেছেন। কংগ্রেস সভানেত্রীর এদিনের বক্তব্যে নির্বাচনের আগে দলীয় সমর্থকরা চাঙ্গা হবেন বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।
সোনিয়ার দ্বিতীয় দফায় নির্বাচনী প্রচারের ঠিক আগে মোদীর করা মন্তব্য ঘিরে রাজনৈতিক সোরগোল ছড়ায়। গত বুধবার কংগ্রেস সভানেত্রীকে গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর নাম ঘোষণা করতে বলেন। ডিসেম্বরের ১৩ ও ১৭ তারিখ দু`দফায় গুজরাতে ভোটগ্রহণ হবে। ফল ঘোষণা হবে ২০ তারিখ।



First Published: Friday, December 7, 2012 - 21:15


comments powered by Disqus