আমি জীবনকে ভালবাসি: ইরম শর্মিলা চানু

আদালতে পেশের জন্য মণিপুর থেকে দিল্লি নিয়ে আসা হল ইরম শর্মিলা চানুকে। আজই রাজধানীর এক আদালতে মামলাটি ওঠার কথা। ইরম শর্মিলার বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০৯ ধারায় আত্মহত্যার চেষ্টার অভিযোগে মামলা রুজু হয়। দিল্লির যন্তর-মন্তরে আফস্পা আইন প্রত্যাহারের দাবিতে অনশনে বসেছিলেন তিনি।

Updated: Mar 4, 2013, 09:18 AM IST

আত্মহত্যার চেষ্টার 'অপরাধে' ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০৯ ধারায় মণিপুরের সমাজকর্মী ইরম শর্মিলা চানুর বিরুদ্ধে চার্জশিট গঠন করল দিল্লির একটি আদালত। দিল্লির যন্তর মন্তরে শর্মিলা চানুর অনশন প্রতিবাদকে উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে আত্মহত্যার চেষ্টা বলে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। এই মামলায় ইরম শর্মিলাকে দিল্লির আদালতে পেশ করা হয়। বিচারপতি তাঁকে দোষ স্বীকার করতে বললে তিনি তা অস্বীকার করেন। যানান তিনি জীবনকে ভালবাসেন। আত্মহত্যা করার কোনও ইচ্ছাই তাঁর নেই। আজ আদালতে তিনি বলেন ''আমার অনশন আফস্পার বিরুদ্ধে অহিংস আন্দোলন।''
বিতর্কিত আফস্পা আইন প্রত্যাহারের দাবিতে গত ১২ বছর ধরে অনশন-আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন মণিপুরের প্রতিবাদী এই মহিলা। দুহাজার সাল থেকে অসম রাইফেলসের জওয়ানদের হাতে ১০ জন সাধারণ মণিপুরী মানুষের মৃত্যুর প্রতিবাদে আমরণ অনশনে বসেন শর্মিলা।  তাঁকে নাকে নল দিয়ে জোর করে খাওয়ানো হচ্ছে দীর্ঘ এক যুগ ধরেই। আজও চলছে তাঁর আন্দোলন।
আজ শর্মিলার তর্কের জবাবে আদালত জানিয়েছে, "আমরা আপনাকে শ্রদ্ধা করি। কিন্তু আমরা আপনাকে আত্মহত্যার অনুমতি দিতে পারি না।" তিনি আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন কি না, তা নিয়ে আদালত ইলমকে প্রশ্ন করলে, তিনি সাফ জানিয়ে দেন 'না'। তবে মণিপুরের এই প্রতিবাদী তরুণী জানিয়েছেন তিনি বিশ্বাস করেন তাঁর আন্দোলন সাফল্য পাবেই। 
এদিন পাটিয়ালা হাউস কোর্টে যখন মামলার শুনানি চলছে, তখনও শর্মিলার সমর্থকরা আদালত চত্বরে বাইরে প্রতিবাদ দেখাচ্ছিলেন। তাঁদের গলায় ছিল শর্মিলার পক্ষে ও আফসপার বিরোধিতার সুর।