আগাম জামিনের আর্জি প্রত্যাহার তেজপালের, যে কোনও সময় গ্রেফতারের মুখে 'স্টিং কিং'

Last Updated: Thursday, November 28, 2013 - 18:08

দিল্লি হাইকোর্ট থেকে আগাম অন্তর্বতীকালীন জামিনের আবেদন প্রত্যাহার করে নিলেন তরুণ তেজপাল। গোয়ান পুলিসের সমনের জবাবে তেজপাল শনিবার পর্যন্ত সময় চেয়েছিলেন, কিন্তু গোয়ান পুলিস তাঁকে আর সময় দিতে রাজি হয়নি। তার মানে দাঁড়াল তেজপালকে যে কোনও সময় গ্রেফতার করা হতে পারে।

এদিকে, তেহলকার তেহলকার ম্যানেজিং এডিটরের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর পরেও এই কাণ্ডে সোমা চৌধুরীর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠছেই। সোমার বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি তেজপালকে আড়াল করতে অনেক তথ্য গোপন করছেন।

গোয়ার সেই হোটেলে লিফটে ওঠার ঠিক আগে সিসিসিটিভি ফুটেজ মিলল। সেই ভিডিও ফুটেজে দেখা গিয়েছে তেজপাল এক মহিলা সাংবাদিকের সঙ্গে লিফটে উঠছেন। তদন্তকারী এক অফিসার এই খবর জানিয়ে বলেন, সিসিটিভি ফুটেজে পরিষ্কার ৭ নভেম্বর, হোটেলে ব্লক ৭ এর বাইরের লিফটে কিছু একটা গণ্ডগোলের ঘটনা ঘটেছিল।

তিনি আরও বলেন, ''সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যাচ্ছে হলিউড অভিনেতা রবার্টো দি নেরো ও ধর্ষণের অভিযোগ আনা সেই তরুণী সাংবাদিকের সঙ্গে রাত ৯টা নাগাদ তরুণ তেজপাল হোটেলর রুমে ঢুকছেন। সেই সময় তেজপালের হাত ছিল সেই তরুণী সাংবাদিকের ঘাড়ে।''

কিছুদিন আগে তহেলকার এক সাংবাদিক অভিযোগ করেন, গোয়ার একটি হোটেলের লিফটে তাঁকে যৌন নির্যাতন করেছেন পত্রিকার সম্পাদক তরুণ তেজপাল৷কিন্তু লিফটে সিসিটিভি না থাকায় প্রমাণ করার কঠিন হচ্ছিল। কিন্তু এই সিসিটিভি ফুটেজের পর তরুণী সাংবাদিকের অভিযোগ আরও পরিষ্কার হল।
আজ সকাল ৮টা ২৫ নাগাদ তেহলকার ম্যানেজিং এডিটরের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন সোমা চৌধুরী। এই ঘটনায় সোমা চৌধুরীর ভূমিকা নিয়ে আগেই প্রচুর সমালোচনা হয়েছে। অভিযোগ উঠেছে তেহেলকা সম্পাদককে আড়াল করার চেষ্টা করেছেন তিনি। এর সঙ্গেই অভিযোগ ওঠে মিথ্যা কথা বলে নিগৃহীতা তরুণীর চরিত্র হননের চেষ্টা করছেন তিনি। তবে নিজের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগই অস্বীকার করেছেন সোমা।

তরুণ তেজপালের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনা তেহলকার প্রাক্তন সাংবাদিক গোয়া ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে বুধবার তাঁর জবানবন্দী রেকর্ড করেন। এরপরেই গোয়া পুলিস তরুণ তেজপালের নামে সমন জারি করে। বৃহস্পতিবার বেলা ৩টের মধ্যে গোয়া পুলিসের সামনে হাজিরা দিতে হবে স্টিং অপারেশন কিং তরুণ তেজপালকে।

দিল্লি হাইকোর্ট তরুণ তেজপালের অন্তর্বতীকালীন জামিনের আবেদনের রায় জানাবে ২৯ নভেম্বর।

প্রথমে নিগৃহীতা তরুণীর কাছে ইমেলে নিজের আচরণের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করলেও তারপরে নিজের অবস্থান থেকে ১৮০ ডিগ্রি সরে এসে সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তেহলকার সম্পাদক। তিনি জানিয়েছেন তিনি নির্দোষ। পুরো ঘটনাটিই নিছক মস্কারার ছলে ঘটেছিল বলে দাবি করেন তরুণ তেজপাল।



First Published: Thursday, November 28, 2013 - 08:55


comments powered by Disqus