ট্রাক কেলেঙ্কারি, জেরার মুখে প্রাক্তন সেনাকর্তা

ভারতীয় সেনাবাহিনীতে টাট্রা ট্রাক ঘুষকাণ্ডের তদন্তে নেমে এবার ভারতীয় সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত লেফটেন্যান্ট জেনারেল তেজেন্দ্র সিং`কে জেরা করল সেন্ট্রাল ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন (সিবিআই)। এর আগে চেক প্রজাতন্ত্রের ট্রাক নির্মাতা কোম্পানি টাট্রা-র প্রধান অংশীদার, ব্রিটেনের সংস্থা, ভেকট্রা`র ভারতীয় বংশোদ্ভূত মালিক রবি ঋষি এবং টাট্রা ট্রাকের যন্ত্রাংশ ভারতে এনে সেগুলি জুড়ে ভারতীয় ফৌজে ট্রাক সরবরাহকারী রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সংস্থা `ভারত আর্থ মুভার্স লিমিটেড` (বিইএমএল)-এর কর্ণধার ভি নটরাজনকে জেরা করা হয়েছে এই মামলায়।

Updated: May 2, 2012, 07:04 PM IST

ভারতীয় সেনাবাহিনীতে টাট্রা ট্রাক ঘুষকাণ্ডের তদন্তে নেমে এবার ভারতীয় সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত লেফটেন্যান্ট জেনারেল তেজেন্দ্র সিং`কে জেরা করল সেন্ট্রাল ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন (সিবিআই)। এর আগে চেক প্রজাতন্ত্রের ট্রাক নির্মাতা কোম্পানি টাট্রা-র প্রধান অংশীদার, ব্রিটেনের সংস্থা, ভেকট্রা`র ভারতীয় বংশোদ্ভূত মালিক রবি ঋষি এবং টাট্রা ট্রাকের যন্ত্রাংশ ভারতে এনে সেগুলি জুড়ে ভারতীয় ফৌজে ট্রাক সরবরাহকারী রাষ্ট্রায়ত্ত্ব সংস্থা `ভারত আর্থ মুভার্স লিমিটেড` (বিইএমএল)-এর কর্ণধার ভি নটরাজনকে জেরা করা হয়েছে এই মামলায়। এবার সেনাপ্রধান ভি কে সিংয়ের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা সংস্থার প্রাক্তন কর্ণধার তেজেন্দ্র সিং`কে সিবিআই-এর জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হতে হল।
গত ২৫ মার্চ জেনারেল ভি কে সিং একটি ইংরেজি দৈনিকে দেওয়া সাক্ষাত্‍কারে নাম না করে অবসরপ্রাপ্ত লেফটেন্যান্ট জেনারেল তেজেন্দ্র সিংয়ের বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীর জন্য টাট্রা সংস্থার কাছ থেকে ৬০০টি নিম্নমানের গাড়ি কেনার বিনিময়ে তাঁকে ১৪ কোটি টাকা ঘুষের প্রস্তাব দেওয়ার অভিযোগ এনেছিলেন। এর পর সংশ্লিষ্ট সংস্থার তৈরি নিম্নমানের ট্রাকগুলি কেনা হয় বলেও জানিয়েছিলেন জেনরেল সিং। তিনি বলেন, বর্তমানে ভারতীয় ফৌজে টাট্রা`র এজাতীয় ৭০০০ ট্রাক রয়েছে।

মিডিয়ায় এই ঘটনা প্রচারিত হওয়ার পরই সিবিআই তদন্তের নির্দেশ দেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী এ কে অ্যান্টনি। সেনাবাহিনীতে টাট্রা ট্রাক কেনাবেচায় দুর্নীতির অভিযোগের তদন্তে ইতিমধ্যেই চেক প্রজাতন্ত্রের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে সিবিআই। চেক প্রজাতন্ত্রের ট্রাক নির্মাতা কোম্পানি টাট্রা-র প্রধান অংশীদার, ভেকট্রা-র বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি আর্থিক অনিয়মেরও খোঁজ মিলেছে। সে বিষয়ে ব্রিটেন ও চেক প্রজাতন্ত্রের দুর্নীতিদমন বিভাগের কাছ থেকে তথ্য সংগ্রহের চেষ্টা করছে সিবিআইয়ের ইকনমিক অফেন্স উইং।
ইতিমধ্যেই ভেকট্রা`র প্রধান, অনাবাসী ভারতীয় রবি ঋষি ও বিইএমএল কর্ণধার নটারাজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে সিবিআই। ঋষির পাসপোর্ট বাজেয়াপ্ত করার পাশাপাশি তাঁকে আপাতত দেশ ছাড়তেও নিষেধ করা হয়েছে। অন্যদিকে তদন্তের সূত্র ধরে নটরাজনের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ উপদেষ্টা টি কে এ নায়ারের কয়েকজন আত্মীয়-পরিজনকে সরকারি বিধি ভেঙে বিইএমএল কর্মচারী সমবায়ের জমি বিলিরও অভিযোগ উঠে এসেছে।

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close