উত্তরপ্রদেশ আতঙ্ক: ধর্ষণের পর খুন করে গাছে ঝুলিয়ে দেওয়া হল কিশোরীকে, থানার মধ্যেই পুলিসের বিরুদ্ধে উঠল ধর্ষণের অভিযোগ

উত্তরপ্রদেশে লজ্জার ইতিবৃত্ত অব্যাহত। বদুয়াঁর পর আরও একবার ধর্ষণের পর খুন করে এক কিশোরীকে গাছে ঝুলিয়ে দেওয়া হল। এবার ঘটনাস্থল মোরাদাবাদ।

Updated: Jun 12, 2014, 10:40 AM IST

উত্তরপ্রদেশে লজ্জার ইতিবৃত্ত অব্যাহত। বদুয়াঁর পর আরও একবার ধর্ষণের পর খুন করে এক কিশোরীকে গাছে ঝুলিয়ে দেওয়া হল। এবার ঘটনাস্থল মোরাদাবাদ।

এই ঘটনায় ফের আরও একবার বেআব্রু হয়ে গেল উত্তর প্রদেশে নারী সুরক্ষার বেহাল দশা। নারী নির্যাতনের ঘটনা সে রাজ্যে ক্রমবর্ধমান। অনান্য যৌন নির্যাতনের সঙ্গে সঙ্গে উত্তরপ্রদেশে প্রতিদিন গড়ে অন্তত ১০টি ধর্ষণের ঘটনা নথিভুক্ত হয়। বাস্তব চিত্রটা স্বাভাবিক ভাবেই আরও ভয়াবহ।

রক্ষকই দেখা দিল ভক্ষকের ভূমিকায়। ধর্ষণের অভিযোগ উঠল পুলিসের বিরুদ্ধেই। হামিরপুর এক ভদ্রমহিলা চার পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে তাঁকে ধর্ষণের অভিযোগ আনলেন।

নিগৃহীতা মহিলা অভিযোগ করেছেন তাঁর স্বামীর মুক্তির বিষয়ে কথা বলতে তিনি রাত ১১টা ৩০ নাগাদ পুলিস স্টেশনে যান। ওই মহিলার দাবি সেই সময়ে থানায় এক সাব-ইন্সপেক্টর ছাড়া আর কেউই ছিল না। অভিযোগ ওই সাব-ইন্সপেক্টর ভদ্র মহিলাকে নিজের ঘরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে।

অভিযুক্ত সাব ইন্সপেক্টরকে গ্রেফতার করা হলেও অপর তিন অভিযুক্ত কনস্টেবল এখনও ফেরার। নিগৃহীতা মহিলার অভিযোগের ভিত্তিতে চার অভিযুক্তের বিরুদ্ধেই এফআইআর দায়ের করা হয়েছে।