হাসপাতালের লিফ্‌টে মূক ও বধির মহিলাকে ধর্ষণ ওয়ার্ড বয়, নিরাপত্তারক্ষীর

Last Updated: Monday, September 2, 2013 - 14:30

ফের আর এক গণধর্ষণ। ফের আর এক বার লজ্জায় মুখ ঢাকল দেশ। এবার ঘটনাস্থল পুণে। পিমপরি চিঞ্চওয়াড় মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন সিভিক হাসপাতালের ওয়ার্ড বয় ও ওয়াচম্যানের লালসার শিকার হলেন ৩০বছরের মানসিক ভারসাম্যহীন এক মূক-বধির মহিলা। অভিযোগ চলন্ত লিফট ওই মহিলাকে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে ওয়ার্ড বয়। ওয়ার্ড বয়কে এই কাজে সাহায্য করে নিরপত্তারক্ষী।
গত ২৬ অগাস্ট জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন নিগৃহীতা মহিলা। গত মাসের ২৯ তারিখ অভিযুক্তরা ওই মহিলাকে বলেন তাঁকে অন্য ওয়ার্ডে নিয়ে যাওয়ার আদেশ করা হয়েছে। অভিযুক্তরা এরপর মহিলাকে লিফট টেনে নিয়ে যায়। সেখানেই তাঁকে ধর্ষণ করে ওয়ার্ড বয়।
সোমবার নিগৃহীতার মেডিক্যাল রিপোর্ট আসার কথা।
নিগৃহীতা মহিলা প্রাথমিকভাবে এই ঘটনা কাউকেই জানান্নি। ৩১ তারিখ হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে তাঁর আশ্রয় স্থল চৈতন্য মহিলা মণ্ডলে চলে আসেন। এই মহিলা মণ্ডলের এক পুনর্বাসন আধিকারিকে নিগৃহীতা আকারে ইঙ্গিতে ঘটনাটির কথা জানান। ওই আধিকারিকই গত সপ্তাহের শনিবার সন্ধ্যাতে পুলিসের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন।
নিগৃহীতার বর্ণনার ভিত্তিতে রবিবার ওয়ার্ড বয় শৈলেন্দ্র দাগড়ু যাদব (৩৯) এবং নিরাপত্তারক্ষী প্রমোদ মনোহর মান্দেকরকে (২৮) গ্রেফতার করা হয়েছে।  সেপ্টেম্বর ৪তারিখ পর্যন্ত অভিযুক্তদের পুলিসি হেফাজতে রাখা হয়েছে।



First Published: Monday, September 2, 2013 - 15:55


comments powered by Disqus