সমকামিতা ইস্যুতে আদালতের 'বিবেচনা বোধে'ই ভরসা কেন্দ্রের

ভারতে দেড়শো বছর ধরে সমকামিতা নিষিদ্ধ। ৩৭৭ ধারা অনুযায়ী, সমকামিতা 'প্রকৃতি বিরুদ্ধ'। ইংরেজ আমলের এই আইনে সমকামিতার সম্পর্কে জড়ালে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সংস্থান রয়েছে।

Updated: Jul 11, 2018, 01:42 PM IST
সমকামিতা ইস্যুতে আদালতের 'বিবেচনা বোধে'ই ভরসা কেন্দ্রের

নিজস্ব প্রতিবেদন: সমকামিতা কী অপরাধ? এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকার কোনও মন্তব্য করতে চায় না। বরং, সুপ্রিম কোর্টের বিবেচনা বোধের উপরই ভরসা করতে চায়। বুধবার শীর্ষ আদালতে এ কথা স্পষ্ট করে দিলেন সরকারি আইনজীবী তুষার মেহতা।

ভারতে দেড়শো বছর ধরে সমকামিতা নিষিদ্ধ। ৩৭৭ ধারা অনুযায়ী, সমকামিতা 'প্রকৃতি বিরুদ্ধ'। ইংরেজ আমলের এই আইনে সমকামিতার সম্পর্কে জড়ালে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সংস্থান রয়েছে। এই আইনকেই চ্যালেঞ্জ করে অতীতে দিল্লি হাইকোর্টে মামলা দায়ের হয়। হাইকোর্ট সেই আবেদনকে মান্যতা দিলেও ২০১৩ সালে সুপ্রিম কোর্ট সেই রায় খারিজ করে দেয়। শীর্ষ আদালতের সেই রায়ই পুনর্বিবেচনার দাবি নিয়ে ইতিমধ্যে জমা পড়েছে গুচ্ছ আবেদন। সেইসব আবেদনের ভিত্তিতেই চলতি বছরের জানুয়ারিতে ফের বিচার শুরু করেছে সুপ্রিম কোর্ট। এই মামলায় কেন্দ্রকে হলফনামা দিয়ে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করতে বলেছিল আদালত। এদিন কেন্দ্র জানাল, এ বিষয়ে আদলেতের বিচক্ষণতা ও বিবেচনা বোধের উপর ভরসা করছে তারা। আরও পড়পন- ‘স্কুলে সমকামিতা মানবে না রাজ্য’, কমলা গার্লস বিতর্কে মন্তব্য শিক্ষামন্ত্রীর

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. You can find out more by clicking this link

Close